হামলাকারীকে অবিলম্বে গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি

 

সাংবাদিক কেএ মান্নানের ওপর হামলার ঘটনায় আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের তীব্র নিন্দা

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: সাংবাদিক কেএ মান্নানের ওপর পৈচাশিক হামলার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাব। হামলাকারী গরুর দালাল নাজিম উদ্দীনকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের হাতে সোপর্দ করতে প্রশাসনের ওপর জোর দাবি জানানো হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের এক জরুরি সভায় এ দাবি জানানো হয়।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গার জামজামি ইউনিয়নের ঘোষবিলা গ্রামের সাংবাদিক কেএম মান্নান গতকাল দুপুরের দিকে মোটরসাইকেলযোগে জামজামি বাজারে যাচ্ছিলেন। তিনি ঘোষবিলা স্কুলের সামনে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা ঘোষবিলা গ্রামের মৃত মাহতাব ম-লের ছেলে গরুর দালাল নাজিম উদ্দিন তার মোটরসাইকেলের গতি রোধ করে। তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। কেএম মান্নানকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। ভেঙে দেয়া হয় ক্যামেরা। আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে হামলাকারী মান্নানের পকেটে থাকা ডিজিটাল ক্যামেরা ও ২৫০০ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায় আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ। বিবৃতিতে সাংবাদিক কেএ মান্নানের ওপর হামলাকারীকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। বিবৃতি প্রদান করেন আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু, সাধারণ সম্পাদক খ. হামিদুল ইসলাম আজম, দৈনিক মাথাভাঙ্গা ব্যুরো প্রধান  রহমান মুকুল, সাংবাদিক ফিরোজ ইফতেখার, প্রশান্ত বিশ্বাস, জামসিদুল হক মুণি, ইউনুস আালী ম-ল, শেখ সফিউজ্জামান, শরিফুল ইসলাম রোকন, অনিক সাইফুল, ডা. আতিকুর রহমান, নাসির উদ্দিন,  হেলাল উদ্দিন, আব্দুস সালাম প্রমুখ।


আরো দেখুন

খোশ আমদেদ মাহে রমজান

প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউসুফ আলী: পবিত্র মাহে রমজানের রহমত দশকের আজ চতুর্থ দিন। রমজান মাস …

Loading Facebook Comments ...