ভৈরব নদীর পাড় কেটে হাজার হাজার গাড়ি মাটি বিক্রি অব্যাহত

দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা এলাকার মাটি খেকো দালালদের মিথ্যা প্রচারণা

মোস্তাফিজ কচি: দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা এলাকার ওপর দিয়ে প্রবাহমান ঐতিহ্যবাহী ভৈরব নদী খনন করা হবে এ রকম মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে মাটি খেকো কয়েকজন দালাল ও ট্রাক্টর মালিক ভৈরব নদীর পাড় থেকে হাজার হাজার গাড়ি মাটি কেটে স্থানীয় ইটভাটাসহ নিচু জমিতে মাটি ভরাটের কাজে বিক্রি করছে। অব্যাহত মাটি কাটার ফলে আগামী বর্ষা মরসুমে নদী সংলগ্ন উঁচু পাড় ভেঙে পড়বে বলে আশঙ্কা করছে সচেতন মহল। সরেজমিনে নদীর পাড় কাটার স্থান ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিদিনই বেশ কয়েকটি ট্রাক্টর পাল্লা দিয়ে কোমরপুর পূর্বপাড়ার নদীর পাড় কাটছে। নদীর পাড় কাটার বিষয়ে জমির মালিকদের সাথে কথা বললে তারা জানান মেহেরপুর জেলাসহ ভৈরব নদী সরকারিভাবে খনন করা হচ্ছে। আমাদের এলাকায় নদী বেশ কয়েক বার মাপযোগ করা হয়েছে। আমাদের এ সকল জমি খননের মধ্যে পড়বে। তাই আগেভাগেই স্বল্প টাকায় মাটি বিক্রি করছি। কারা মাটি কিনছে এ জবাবে এলাকার বেশ কিছু দালাল ও ট্রাক্টর মালিকরা বলেন এসব মাটি কোথায় যাচ্ছে জানি না। এলাকার কয়েকটি ইটভাটার মালিকদের সাথে কথা হলে নাম প্রকাশ করার শর্তে জানান, আমাদের কোনো গাড়ি মাটি কাটার কাজে ব্যবহার হচ্ছে না। বাইরে ট্রাক্টর মাটি ইটভাটায় দিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রফিকুল হাসান প্রতিবেদককে জানান, কোন ব্যক্তি নদীর পাড়ের স্তর কাটতে হলে তাকে অবশ্য আমাদের কাছে অনুমোদন নিতে হবে। না নিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যদি ফসলি জমিতে কেউ মাটি কাটে এবং পাশের জমির মালিক লিখিত অভিযোগ দেন, তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো।


আরো দেখুন

প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগের সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের সব জেলায় প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ কাজ দ্রুত শেষ করার …

Loading Facebook Comments ...