দামুড়হুদার ইব্রাহিমপুর গুচ্ছগ্রামে বৃদ্ধকে মারধর : নগদ টাকা লুটসহ বসতঘর ভেঙ্গে তছনছ করার অভিযোগ

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদার ইব্রাহিমপুর কুলবিলা গুচ্ছগ্রামে বৃদ্ধকে মারধর করে নগদ টাকা-পয়সা লুটপাটসহ ছাপড়াঘর ভেঙে তছনছ করার অভিযোগ উঠেছে। ক্ষতিগ্রস্থ বৃদ্ধ ছানোয়ার হোসেন অভিযোগ করে বলেছেন, প্রতিপক্ষ একই গ্রামের বাক্কার ছেলে জিয়াসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জন গত বুধবার রাত ৮টার দিকে আমাকে মারধর করে নগদ ৭০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। সেই সাথে আমার বসতঘর ভাঙচুর করেছে। তার ভয়ে আমি থানায় অভিযোগও করতে পারছি না।
জানা গেছে, দামুড়হুদা উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়নের ইব্রাহিমপুর গ্রামের কুলবিলা গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দা মৃত মানিক মালিথার ছেলে ছানোয়ার হোসেন (৬০) প্রায় বছর খানেক আগে গুচ্ছগ্রামের অদূরে রাস্তার পাশে পেঁপে বাগানের সাথে টিন দিয়ে ছাপড়াঘর নির্মাণ করে বসবাস শুরু করেন। তিনি ওই জমিতেই সম্প্রতি পাঁকাঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এরই এক পর্যায়ে একই গ্রামের বাক্কার ছেলে জিয়া (৪০) তার লোকজনকে সাথে নিয়ে গত বুধবার রাত ৮টার দিকে আসে এবং আমাকে বলে তুই এখানে ঘর করতে পারবি না। এখানে ঘর করলে আমাদের চলাচলে সমস্যা আছে। এ কথা বলার পরপরই তারা আমার ছাপড়াঘরে ঢুকে পড়ে এবং ৭০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। আমি বাঁধা দিতে গেলে আমাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে এবং ছাপড়াঘরটি ভাঙচুর করে চলে যায়। যাওয়ার সময় প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে বলে তুই যদি এখানে পাঁকাঘর নির্মাণ করিস তাহলে তোকে জানে মেরে ফেলবো। এখন আমি তার ভয়ে থানায় অভিযোগও করতে সাহস পাচ্ছি না। এ ঘটনায় দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আকরাম হোসেনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী বৃদ্ধ ছানোয়ার হোসেন।


আরো দেখুন

প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগের সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের সব জেলায় প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ কাজ দ্রুত শেষ করার …

Loading Facebook Comments ...