বৃহস্পতিবার , এপ্রিল ২৬ , ২০১৮

নব আনন্দে জাগো আজি : স্বাগত নববর্ষ

চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারা দেশে নানা আয়োজন
স্টাফ রিপোর্টার: আজ পয়লা বোশেখ। নব আনন্দে জেগে উঠবার দিন। বিশ্বায়নের এ যুগে নিজের জাতিগত সাংস্কৃতিক উৎসবে মেতে উঠবে আজ বাঙালির হৃদয়। সূর্যের নতুন আলোর সঙ্গে আজ এসেছে নতুন বছর, বঙ্গাব্দ ১৪২৫। স্বাগত নববর্ষ।
নববর্ষ উদযাপন পরিণত হয়েছে বাংলাদেশের সর্বজনীন উৎসবে। পয়লা বোশেখের ভোরে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে নতুন বছরকে স্বাগত জানানোর আয়োজনে আজ মেতে উঠবে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরসহ সারাদেশ। ভোরের আলো রাঙিয়ে দেবে নতুন স্বপ্ন, প্রত্যাশা আর সম্ভাবনাকে। রাজধানী জুড়েও থাকবে বর্ষবরণের নানা আয়োজন। নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাজধানীতে প্রতিবছর ছায়ানটের প্রভাতী অনুষ্ঠান দিয়ে শুরু হয় পয়লা বোশেখ উদযাপন। ছায়ানটের বটমূলের এ আয়োজন এ বছর একান্ন বছরে পা রেখেছে। আজ সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর সব বয়সের নাগরিক নতুন পোশাক পরে নতুন বছরকে বরণের জন্য বের হয়ে আসবেন রাজপথে। সবার ঠিকানা হয়ে উঠবে রমনা বটমূলসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, বাংলা একাডেমি, ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবর এলাকা। তীব্র গরম উপেক্ষা করে বাঙালি মিলিত হবে সর্বজনীন অসাম্প্রদায়িক উৎসবে। আজ সরকারি ছুটির দিন।
বর্ষবরণের চুয়াডাঙ্গার কর্মসূচি: চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ৬টায় ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সকাল সোয়া ৭টায় চাঁদমারী মাঠ থেকে শহীদ হাসান চত্বর ও কবরী রোড হয়ে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ পর্যন্ত নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা। পরে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ চত্বরে আলোচনা, সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। বেলা দেড়টায় হাসপাতাল, কারাগার, শিশু পরিবার সমন্বিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্কুলে ঐতিহ্যবাহী বাঙালি খাবার পরিবেশন। বেলা ৫টায় ভিজে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৫দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার উদ্বোধন। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু স্বাক্ষরিত পত্রে এ তথ্য জানিয়ে সকলকে মেলায় আসার আহ্বান জানানো হয়েছে। আজ সকাল সাড়ে ৮টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ চত্বরে পান্তাভোজ, বৈশাখী আড্ডা ও লোকসঙ্গীতের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদীন খোকন। বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদে কবিতা পাঠ, আড্ডা ও মসুরি খিচুড়ির আয়োজন করা হয়েছে বলে পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জানান। এসিআই মটরস্্ চুয়াডাঙ্গা টাউন ফুটবল মাঠে বর্ষবরণের আয়োজন করা হয়েছে।
বাঙালির প্রাণের উৎসব পয়লা বোশেখ পুরোনো দিনের গ্লানি মুছে দিয়ে হৃদয়ের রঙে নতুনকে বরণ করার লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা আয়োজন করেছে পৌরমেলা ১৪২৫। আজ শনিবার বেলা ১১টায় কোর্টপাড়া ভি.জে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ফুটবল মাঠে ১৫ দিনব্যাপী মেলার উদ্বোধন করা হবে। েেমলার প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে রয়েছে।
মেলায় তৈরি করা হয়েছে বিশাল তোরণ। শিশুদের জন্য বিশেষ ট্রেন, নাগরদোলা, নৌকা, যাদু, ঘোড়া, বিভিন্ন খেলনা সামগ্রী ও খাবার দোকান থাকবে। চুয়াডাঙ্গা কোর্টপাড়ার বাসিন্দা গোলাম আজম পিনা বলেন, ইতঃপূর্বে যে মেলাগুলো হতো তার থেকে ব্যতিক্রম মেলা হচ্ছে এবার। মেলা কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ চলতি এইচএসসি পরীক্ষার কারণে মাইক ব্যবহারে যতœশীল হতে হবে। যাতে মেলার আশেপাশের মানুষ শব্দদূষণে আক্রান্ত না হয়।’
চুয়াডাঙ্গা পৌরমেলা প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক প্যানেল মেয়র মুন্সী রেজাউল করিম খোকন বলেন, পৌরনাগরিকদের বিনোদনের ব্যবস্থার জন্য মেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে। আশাকরি প্রতিবছরের ন্যায় মেলা এবারও নাগরিকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে।’ চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সচিব কাজী শরিফুল ইসলাম বলেন, মেলা প্রাণবন্ত করতে পৌরসভা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। তবে, মেলায় দর্শকদের উপস্থিতিই প্রমাণ করবে মেলা সার্থক হয়েছে।’
এদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ ‘নব আনন্দে জাগো আজি নবরবিকিরণে’ সেøাগানে শুভ বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে আজ শনিবার উদযাপন করছে। গতকাল শুক্রবার রাত ৮টায় জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) নুরজাহান খানম নববর্ষের প্রস্তুতি দেখতে জেলা পরিষদে উপস্থিত হন। এ সময় জেলা পরিষদের সদস্য শহিদুল ইসলাম সাহান, খলিলুর রহমান ও মাহবুবুর রহমান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা রমজান আলী, হিসাব রক্ষক আসলাম উদ্দিন ও জালাল উদ্দিনসহ জেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা পরিষদের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ভোজ, বৈশাখী আড্ডা ও লোকসঙ্গীত পরিবেশন। শিল্পীদের মধ্যে রয়েছে প্রখ্যাত বাউল শিল্পী আব্দুল লতিফ শাহ, শান্ত, স¤্রাট ও রিপা। চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদীন খোকন বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উপলক্ষে সকলকে নববর্ষের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।
কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে পয়লা বোশেখ উদযাপন করবে বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সকালে বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শোভাযাত্রা করবে। এরপর দিনভর খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে দিনটি উদযাপন করবে। কার্পাসডাঙ্গাসহ আশপাশের এলাকায় ছেলে-মেয়েরা বিভিন্নভাবে সেজে রাস্তায় ঘুরবে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সাংস্কৃতিক ও খেলাধুলায় আয়োজন করবে এরপর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে। এদিকে পুরাতন বছরের হিসেব চুকিয়ে নতুন করে খাতা খোলার জন্য কার্পাসডাঙ্গার বিভিন্ন আড়ৎদাররা মিষ্টিমুখ করাবে যারা তাদের কাছে মালামাল দেয়।


আরো দেখুন

চুয়াডাঙ্গায় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে নির্মম নির্যাতন করেছে সহপাঠীর পিতা মিজান

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা বেলগাছি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র আশিকুলকে ঘাড়ে ধাক্কা দিতে দিতে নিয়ে …

Loading Facebook Comments ...