একাদশ দল হিসেবে আজ টেস্টে অভিষেক হচ্ছে আয়ারল্যান্ডের

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ১১তম দল হিসেবে আজ শুক্রবার টেস্ট অভিষেক হতে যাচ্ছে আয়ারল্যান্ডের। নিজেদের মাঠ ডাবলিনে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটবে আইরিশদের। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে ম্যাচটি। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অধীনে অষ্টাদশ শতক থেকে ক্রিকেট খেলছে আয়ারল্যান্ড। ১৯৯৩ সালে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি সহযোগী সদস্য হয় তারা। এরপর ওয়ানডে স্ট্যাটাস পায় ২০০৭ সালে। ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়ার ১০ বছর পর টেস্ট মর্যাদা লাভ করে আইরিশরা। টেস্ট মর্যাদার পরীক্ষা আজই প্রথম দেবে আয়ারল্যান্ড। ক্রিকেট জগতে প্রবেশের পর প্রায় আড়াই শ’ বছর পর টেস্ট ফরম্যাটে খেলতে নামবে আইরিশরা। ১৯৩১ সালে ডাবলিনের ফনিক্স ক্রিকেট ক্লাবে ব্যাট-বল হাতে পথ চলা শুরু আয়ারল্যান্ডের। সেই পথ ধরে ইতোমধ্যে ক্রিকেট জগতে সুনাম কুড়িয়েছে আইরিশরা। ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়ার বছরই প্রথমবারের মত ২০০৭ ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলে তারা। গ্রুপপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে টাই করে আয়ারল্যান্ড। নিজেদের প্রথম টেস্টকে বড় উপলক্ষ্য হিসেবে অভিহিত করেছেন আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। তিনি বলেন, ‘আইরিশ ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িত সকলের জন্য এটি অনেক বড় উপলক্ষ। অতীতে আমরা অনেক খেলোয়াড় পেয়েছি। কিছু খেলোয়াড় এখানেও আছে, আবার কিছু নেই। কিন্তু আমাদের মনে রাখতে হবে এবং স্বীকৃতি দিতে হবে এ পর্যায়ে আসতে তারা কি করেছেন। তাদের অবদান না থাকলে আমরা শুক্রবারের ম্যাচের জন্য ভাগ্যবান নাও হতে পারতাম।’ আয়ারল্যান্ডের এমন ঐতিহাসিক ম্যাচের অংশ হতে পেরে বেশ খুশি পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদও। তিনি বলেন, ‘এমন ঐতিহাসিক টেস্টে অংশ হতে পারাটা বিশেষ কিছু।’অস্ট্রেলিয়া ছাড়া ক্রিকেট ইতিহাসে নিজেদের অভিষেক টেস্ট এখনও কোন দল জিততে পারেনি। ১৮৭৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের অভিষেক টেস্টে জয়ের স্বাদ পেয়েছিল অসিরা। সেই ইতিহাস আয়ারল্যান্ড ভাঙতে পারে কি না সেদিকেও নজর থাকবে ক্রিকেট ভক্তদের।


আরো দেখুন

সহজ জয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকার

মাথাভাঙ্গা মনিটর: আশা জাগালেও বড় ইনিংস খেলতে পারলেন না ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামসরা। অনুজ্জ্বল ব্যাটিংয়ের …

Loading Facebook Comments ...