অবশেষে ক্ষমা চাইলেন প্রিয়াঙ্কা

বিনোদন ডেস্ক: প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মার্কিন টিভি সিরিজ কোয়ান্টিকো নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বিতর্ক। ওই সিরিজের একটি পর্বে দেখানো হয়েছে ভারতীয় হিন্দু জাতীয়তাবাদীরা পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলার ছক কষছে। সিরিজে দেখানো হয়েছে কাশ্মীরে একটি সম্মেলনকে সামনে রেখে ওই হামলা ছক কষছে চরমপন্থী হিন্দুরা। গেল ১ জুন এবিসি চ্যানেলে এই পর্বটি প্রচার করা হয়। এরপর থেকেই বিক্ষোভ চলছে ভারতে। ব্যানার-পোস্টার নিয়ে রীতিমতো রাস্তায় নেমে গেছে মানুষজন। তারা ভারতে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিষিদ্ধ করারও দাবি তুলেছেন। কারণ ‘কোয়ান্টিকো’ নামের ওই গোয়েন্দা সিরিজে এফবিআই এজেন্ট এলেক্স প্যারিস চরিত্রে অভিনয় করছেন ‘দেশী গার্ল’ প্রিয়াঙ্কা। একজন হিন্দু অভিনেত্রী হয়েও হিন্দু জাতীয়তাবাদকে অপমান করে নির্মিত সিরিজে অভিনয় করায় প্রিয়াঙ্কাকে ‘দেশদ্রোহী’ ও ‘প্রতারক’ও আখ্যা দেয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিব্রত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। বাধ্য হয়ে সব কিছু শান্ত রাখতে তিনি প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন। আজ রোববার এক টুইট বার্তায় সাবেক মিস ওয়ার্ল্ড প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘কোয়ান্টিকোর সাম্প্রতিক পর্বে কিছু মানুষের অনুভূতিকে আঘাত করেছে। সে জন্য আমি খুব দুঃখিত। এমনটা কখনই আমার পরিকল্পনায় ছিল না, থাকবে না। আমি গর্বিত ভারতীয় নাগরিক এবং এ অনুভূতির কখনই পরিবর্তন হবে না। সবাই শান্ত ও সুন্দর থাকুন।’


আরো দেখুন

নায়িকাকে হত্যার হুমকি!

বিনোদন ডেস্ক: তেলেগু নায়িকা শ্রী রেড্ডি কাস্টিং কাউচ নিয়ে প্রকাশ্যে প্রতিবাদ করেছিলেন। এই অপরাধের জন্য …

Loading Facebook Comments ...