ইরান-বাংলাদেশের ‘ইসলামি ছবি’ তৈরি করবে অনন্ত জলিল

বিনোদন ডেস্ক:ইরানের সঙ্গে যৌথভাবে তৈরি হতে যাওয়া সিনেমা আগামী বছর মুক্তি দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল। যৌথভাবে নির্মিত এ ছবিতে ইসলামি ম্যাসেজ থাকবে। আর এ লক্ষ্যে তিনি ইতিমধ্যে ইরান সফর করেছেন। রেডিও তেহরানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে নায়ক অনন্ত জলিল এসব কথা বলেছেন। অনন্ত জলিলের পরিবার ছাড়াও এ সফরে তার সঙ্গে ছিলেন তার মিডিয়া ম্যানেজার, এক বন্ধু, বাংলাদেশে অবস্থিত ইরানের সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের বাংলাদেশি জনসংযোগ কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম। এ ছবি করার বিষয়টি তার ইরান সফরের মূল উদ্দেশ্য বলে জানান অনন্ত জলিল। তিনি বলেন, ইসলামি ভাবধারায় পুষ্ট অনেক ছবি আগে করেছে ইরান। বিশেষ করে ইসলামি ছবি তৈরিতে ইরানের অনবদ্য দক্ষতার কথা তুলে ধরতে যেয়ে অনন্ত জলিল বলেন, ইরানের ছবি অস্কারে গিয়েছে, কান চলচ্চিত্র উৎসবে গিয়েছে। এমনকি বাংলাদেশেও ডাবিং করে ইরানের অনেক নাটক-ছবি দেখানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, ইরানের এ ধরনের ছবি ছোটবেলা থেকেই দেখে এসেছি। যৌথভাবে এ ধরনের ছবি বানানোর জন্য ইরান সেরা দেশ বলে জানান তিনি। ছবির কাজ কবে শুরু হবে জানতে চাইলে অনন্ত জলিল বলেন, চলতি বছরেই এর কাজ শুরু হবে। এ জন্য দিন-তারিখ এখনো ঠিক করা হয়নি। আগামী বছর ছবি মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।  অনন্ত জলিলের স্ত্রী চিত্র নায়িকা বর্ষা এ ছবিতে থাকবেন জানিয়ে তিনি বলেন, সম্পূর্ণ শালীনতা বজায় রাখা হবে ছবিতে। এ ছাড়া ইরানের অভিনেত্রীরা যেভাবে হিজাব বা ইসলামী শালীন পোশাক পরে অভিনয় করেন এ ছবির সব অভিনেত্রী তা বজায় রাখবেন। চিত্রনায়িকা বর্ষার পাশাপাশি এতে ইরান এবং বাংলাদেশের অভিনেত্রীরা অভিনয় করবেন। ছবিতে ইরানি নায়কও থাকবেন। এদিকে ছবির নাম এখনো ঠিক হয়নি বলে এ ছবি নির্মাণের সঙ্গে জড়িত ইরানি একটি সূত্র জানিয়েছেন।

 


আরো দেখুন

চলচ্চিত্রের উন্নয়নে সবই করবো

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চলচ্চিত্র মানুষের জীবনের প্রতিচ্ছবি। এর মাধ্যমে সমাজে অনেক বার্তা …

Loading Facebook Comments ...