শিশু আকিফা নিহতের মামলাটি অবশেষে হত্যা মামলায় নথিভুক্ত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শিশু আকিফার মামলাটি অবশেষে ৩০২ ধারায় হত্যা মামলা হিসাবে নথিভুক্ত করেছে পুলিশ। ফলে ৩০৪ ধারায় হত্যাচেষ্টা মামলাটি এখন ৩০২ ধারায় এজাহারভুক্ত হলো। গত মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সুমন কাদেরী মামলাটি ৩০৪ ধারার পরিবর্তে ৩০২ ধারা সংযোজনের জন্য আদালতে একটি আবেদন করেন। তদন্ত কর্মকর্তার ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারক এমএম মোর্শেদ আবেদনটি মঞ্জুর করেন। অপরদিকে আদালতের বিচারক জামিনপ্রাপ্ত ঘাতক বাসের মালিক জয়নুল আবেদীন ও চালক খোকনের জামিনও বাতিলের আদেশ দিয়ে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন। আদালত সূত্র জানায়, বাসের ধাক্কায় শিশু আকিফা নিহতের ঘটনায় তার পিতা হারুণ-উর-রশিদ কুষ্টিয়া মডেল থানায় বাদী হয়ে যে মামলা করেন সেটি তিনি ৩০২ ধারায় হত্যা মামলা হিসাবে এজাহারভুক্ত করতে পুলিশকে অনুরোধ করেন। কিন্তু পুলিশ মামলাটি হত্যা মামলা হিসাবে নথিভুক্ত না করে ৩০৪ ধারায় হত্যাচেষ্টা মামলা হিসাবে এজাহারভুক্ত করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ আগস্ট রাজশাহী থেকে ফরিদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে আসা গঞ্জেরাজ পরিবহনের বাস শহরের চৌড়হাস মোড়ে এক বছরের শিশু কন্যা আকিফা ও মা রিনা বেগমকে সজোরে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এ সময় বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে শিশু আকিফা রক্তাক্ত জখম হয়। পরবর্তীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। দুর্ঘটনার পর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ ও সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজ সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এ ঘটনায় মামলার আসামি গঞ্জেরাজ পরিবহনের মালিক জয়নুল আবেদীনকে র‌্যাব ফরিদপুর থেকে গ্রেফতার করে। গত রোববার কুষ্টিয়া মডেল থানার পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়। পরদিন সোমবার কুষ্টিয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এমএম মোর্শেদের আদালতে জামিন আবেদন করা হলে বিচারক জয়নুলকে জামিন দেন। এছাড়া একই দিনে ঘাতক বাসের চালক মহিদ মিয়া ওরফে খোকন আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক তাকেও জামিন প্রদান করেন।


আরো দেখুন

কালীগঞ্জে গাঁজাসহ ৩ মাদকব্যবসায়ী আটক

কালীগঞ্জ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর অভিযান চালিয়ে গাঁজাসহ ৩ মাদকব্যবসায়ীকে আটক করেছে। গতকাল …

Loading Facebook Comments ...