dav

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই পরিচালক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: ফুলেল সংবর্ধনা জ্ঞাপন এফবিসিসিআই’র পরিচালক ও বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা সিআইপি মনোনীত হওয়ায় আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের পক্ষে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় আলমডাঙ্গা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফুলেল সংবর্ধনা জানানো হয়।
আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ আলম মন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংবর্ধিত অতিথি ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা। এ সময় তিনি বলেন, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের দুরাবস্থা তিনি জানেন। জমি ক্রয় করে অথবা কারও দানের জমিতে প্রেসক্লাবের নিজস্ব স্থাপনা নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নিতে হবে। এ জন্য সমস্ত প্রকার সহযোগিতা নিয়ে তিনি পাশে থাকবেন বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, তিনি স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসেন এবং কীভাবে স্বপ্নকে বাস্তবতা দিতে হয় সেটিও জানেন। তিনি আলমডাঙ্গার ছেলে এবং ব্যবসার হাতে খড়ি এই আলমডাঙ্গায় উল্লেখ করে বলেন, আলমডাঙ্গার অসহায় মানুষদের জন্য তিনি সার্বিক সহযোগিতার ধারাবাহিকতার ধারা অব্যাহত রাখতে চান। আলমডাঙ্গাসহ চুয়াডাঙ্গাকে ঘিরে তার অনেক স্বপ্ন আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সকল স্বপ্নের বাস্তব রূপায়নে সকলকে পাশে চেয়েছেন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাজিব হোসেন কচি, তারা দেবী ফাউন্ডেশনের চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক শেখ সেলিম।
সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শামীম রেজা শামীমের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি রহমান মুকুল, সহসভাপতি ইউনুচ আলী ম-ল, যুগ্মসম্পাদক প্রশান্ত বিশ্বাস, রুনু খন্দকার, প্রচার সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, দফতর সম্পাদক আবুল কাশেম টুকু, মানববাধিকার সম্পাদক অনিক সাইফুল, সাংস্কৃতিক বিষয়ের সম্পাদক আতিক বিশ্বাস, সাংবাদিক ইখলাস উদ্দীন, সাইফুল ইসলাম উলু, জাহাঙ্গীর আলম, সোহেল হুদা, সাহাবুল হক, রানা, সুজন ইভান, পলাশ উদ্দীন, তৌহিদুর ইসলাম, গিয়াস উদ্দিন, সমীর, শিপন, নাসির উদ্দিন, সাইফুল, ডাবলু, রুবেল আহম্মেদ প্রমুখ।
অপর দিকে, চুয়াডাঙ্গা আদর্শ সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের পক্ষ থেকে সিআইপি দিলীপ কুমার আগরওয়ালাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় কলেজ মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে ফুলেল শুভেচ্ছা ও উত্তরীয় পরিয়ে সংবর্ধনা জানানো হয়। অনুুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নওরোজ মো. সাঈদ। প্রভাষক জান্নাতুল ফেরদৌসের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ মফিজুর রহমান, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. আব্দুর রশিদ, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী শফিকুল ইসলাম বদা ও শিক্ষার্থীদের পক্ষে তামান্না খাতুন। সিআইপি দিলীপ কুমার আগরওয়ালা একাধারে জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক এফবিসিসিআই’র পরিচালক ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইউনিয়ন গ্রুপ ও তারা দেবী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান।
পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও গীতাপাঠ করে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। এরপর অভ্যর্থিত অতিথি সিআইপি দিলীপ কুমার আগরওয়ালা শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তার বেড়ে ওঠা ও জীবন অভিজ্ঞতার আলোকে বলেন, আপনারা স্বপ্ন দেখবেন তবে জেগে। চিন্তা করবেন বড়, শুরু করবেন ছোট করে। কাজের ক্ষেত্রে সব সময় ১নম্বরে থাকার পরিকল্পনা গ্রহণ করবেন। দিলীপ কুমার আগরওয়ালা আরও বলেন, মায়ের প্রতি প্রত্যেকেই সচেষ্ট থাকবেন। মায়ের দোয়া ও আশীর্বাদ ছাড়া কেউ বড় হতে পারেনি। আমি আমার মায়ের আশীর্বাদে আজ বড় হতে পেরেছি। আজকে এই জায়গায় আসতে পেরেছি। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, তোমরা আগামীদিনের ভবিষ্যত। তোমরা বড় হওয়ার স্বপ্ন দেখো। স্বপ্ন দেখো ব্যবসা করে ভবিষ্যতে আমার মতো সিআইপি হওয়ার। শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে তিনি কলেজ হোস্টেলে ১টি টিভি ও সুপেয় পানির জন্য ১টি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপনের ঘোষণা দেন। পরে অভ্যর্থিত অতিথিকে কলেজের পক্ষ হতে ক্রেস্ট উপহার দেয়া হয়। এছাড়া শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন উত্তর পর্বে এক মনোজ্ঞ পরিবেশের অবতারণা হয়। আবেগী পরিবেশে সিআইপি দিলীপ কুমার আগরওয়ালা তার বন্ধুর পাঠানো একটি কেক কেটে অনুষ্ঠানকে আরও মনোজ্ঞ করে তোলেন। শিক্ষার্থী জেরিনের ভাউয়াল সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের শেষ হয়।


আরো দেখুন

আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা করলো জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট

খালেদার মুক্তিসহ সাত দফা দাবি : ১১ লক্ষ্যে ঐক্যের ডাক জাতীয় স্বার্থে : ড. কামাল …

Loading Facebook Comments ...