বৃহস্পতিবার , অক্টোবর ১৮ , ২০১৮

নদীতে নেমে ডুবে গেলেন মিনতি বালা

দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়ায় খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে লাশ মিললো মালোপাড়ায়

স্টাফ রিপোর্টার: নদীতে নেমে তলিয়ে যাওয়া মিনতি বালাকে উদ্ধারে যখন দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়ার ঘাটে পানি ঘুলিয়ে হয়রান অনেকে, তখনই চুয়াডাঙ্গা মালোপাড়া নামক স্থানে ভেসে উঠলো তার নিথর দেহ। গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মালোপাড়ায় নদীতে নারীর লাশ ভাসার খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে নারীর নিথর দেহ নদী থেকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মিনতি বালা চুয়াডাঙ্গা শহরতলী দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়ার বিনয় কুমারের স্ত্রী। তিনি ছিলেন তিন সন্তানের জননী। পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, বেলা আনুমানিক ১১টার দিকে নদীতে ¯œান করতে যান মিনিত বালা (৪৩)। নদীতে নেমে আর না উঠলে স্থানীয়রা খোঁজাখুজি শুরু করে। ওই সময় নদীতে নেমে উদ্ধারের চেষ্টা চালানোর এক পর্যায়ে আনুমানিক বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মালোপাড়া নদীতে উপুড় হয়ে নারীর দেহ ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা। দ্রুত পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সে খবর দেয়া হয়। নিথর দেহ উদ্ধার করে নেয়া হয় হাসপাতালে। হাসপাতাল থেকে তার লাশ নিকটজনদের হাতে তুলে দেয়া হয়। গতকালই মিনতি বালার শেষকৃত্য সম্পন্ন করার প্রক্রিয়া করা হয়।
বিনয় কুমার চুয়াডাঙ্গা নীচের বাজারে কাচামালের আড়তে দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে কাজ করে আসছেন। তার স্ত্রী নদীতে নেমে পানিতে ডুবলেন কীভাবে? এ প্রশ্নের জবাবে বিনয় কুমারসহ পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, মিনতি বালা মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলেন। পানিতে নেমে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ার কারণেই আর উঠতে পারেননি বলে অনেকেরই অনুমান।


আরো দেখুন

চুয়াডাঙ্গায় সুধীজনদের সাথে মতবিনিময়সভায় নবাগত জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস

  রাষ্ট্রের সেবক হিসেবে ভালো কাজের দ্বারা জনগণের মনে থাকতে চাই স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা …

Loading Facebook Comments ...