চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ বাঁধা দিলেও কালীগঞ্জে ছিলো শান্তিপূর্ণ

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলা রায়ের প্রতিবাদে যুবদলের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ বিএনপির অন্যান্য নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে রায়ের প্রতিবাদে চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মিছিল করেছে। গতকাল রোববার যুবদলের বিক্ষোভ করে।
প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে, গতকাল বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা কেদারগঞ্জস্থ জেলা বিএনপির কার্যালয়ে এ বিক্ষোভ করে। এ সময় পুলিশের বাঁধার মুখে যুবদল নেতৃবৃন্দ রায়ের প্রতিবাদে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন, সেদিন আওয়ামী লীগের সমাবেশ হওয়ার কথা ছিলো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। তৎকালীন প্রশাসন ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি, কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মাত্র ৪ ঘণ্টার আগে আওয়ামী লীগ এই সমাবেশ স্থানান্তরিত করে তাদের দলীয় কার্যালয়ের সামনে, আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী একজন ব্যক্তিকে দিয়ে এমন একটি স্পর্শকাতর ঘটনার তদন্ত, মুফতি হান্নানকে এক বছরের অধিক সময় রিমান্ডে নিয়ে তারেক রহমানের নাম বলানো, তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলের মানিলন্ডারিং মামলায় পর্যাপ্ত প্রমাণ না পাওয়ায় খালাস দেয়া সেই বিচারককে অত্যাচার করে দেশ ত্যাগে বাধ্য করা, সর্বশেষ প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার সাথে যেরূপ আচরণ এই সরকার দ্বারা করা হয়েছে। এতেই বিশ্বাস করার যথেষ্ট কারণ যে, এই সরকার বিএনপিকে নেতৃত্ব শূন্য করে এই অবৈধ সরকার আদালতের ঘাড়ে বন্দুক রেখে আরেকটি একতরফা নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে। তারেক রহমানের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে তার দলের মন্ত্রী-এমপিরা পর্যন্ত তারেক রহমানের নামে কুৎসা রটনায় ব্যস্ত। যুবদল নেতৃবৃন্দ স্পষ্ট ভাষায় বলেন, বেগম জিয়াকে মুক্ত করে তার নেতৃত্বে শেখ হাসিনার পতন ঘটিয়ে নির্দলীয় নিরেপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে আমাদের সোনার বাংলায়। ‘খবধফবৎ ড়ভ ঃযব ঘধঃরড়হ’ তারেক রহমানের নেতৃত্বে এই প্রজন্ম বাংলাদেশকে একটি সুখী, সমৃদ্ধ ও উন্নয়শীল রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবে। তাই বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের জন্য চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদল রাজপথে ছিলো, আছে এবং থাকবে যতোক্ষণ পর্যন্ত না এই অবৈধ সরকারের পতন হয়। জেলা যুবদল সভাপতি শরীফ-উর-জামান সিজারের সভাপতিত্বে জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব খানের সঞ্চালনায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সদস্য হাজি রবিউল ইসলাম বাবলু, জেলা যুবদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বিপ্লব, জেলা বিএনপির সাবেক দফতর সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক বকুল, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাহাজান খান, জেলা যুবদলের সহসভাপতি ফয়েজ আহাম্মেদ, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক রবিউল হক মল্লিক, সহসাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন, আহসান, পিনু, মমিন, আবদার হোসেন রাজু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল, মাসুদ, ঝন্টু, প্রচার সম্পাদক উজ্জল, সহ-দফতর সম্পাদক আশা, ক্রীড়া সম্পাদক সনি, চুয়াডাঙ্গা পৌর বিএনপির সহসভাপতি ইনতাজ আলী, সহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক আলমগীর, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আক্কাস আলী, জেলা যুবদলের সদস্য বিপুল, আজিজুল হক, কাজল শেখ, সালমান, এমদাদ, সেলিম, আজাদ, সাইদুল, নাজমুল, মিজান, দেলোয়ার, মতিয়ার, নজরুলসহ সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
কালীগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, রায়ের প্রতিবাদে কালীগঞ্জ উপজেলা যুবদলের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল হয়। গতকাল বিকালে কালীগঞ্জ পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শাহজান আলী খোকনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মিলন, পৌর যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি শাহীন লস্কার, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক কোরবান আলী, থানা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক আসরাফুজ্জামান রনি। এ সময় আর উপস্থিত ছিলেন পৌর যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি শাহীন লস্কার, যুবদল নেতা মিলন, মিজানুর, শহিদুল মানিক, কবির, ফাইজুল কবির ফিরোজ, উজ্জ্বল লস্কার, সাবেক ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক টিপু সুলতান রনি, শাহ আলম বিটুল, যুগ্মআহ্বায়ক মিলন হোসেন, ছাত্রনেতা শাহীন, কলেজ ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্মআহবায়ক আবু তাহের, যুগ্মআহ্বায়ক ফিরোজ ইকবাল, শফিক, কাজল লিমন লিসান হাবীবসহ আর অনেকেই। এ সময় বক্তারা বলেন, দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা সাজা প্রত্যাহার ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ছাড়া এদেশে নীল নকশার প্রহসনের নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।


আরো দেখুন

জীবননগর ও দামুড়হুদার মন্দিরের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে নজরুল মল্লিক

উৎসব পালন করুন আনন্দ আর উল্লাসের সাথে জীবননগর ব্যুরো: শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে দামুড়হুদা ও জীবননগর …

Loading Facebook Comments ...