আলমডাঙ্গার মাদারহুদায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনাসভা করায় উত্তেজনা

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার মুন্সিগঞ্জের মাদারহুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও ম্যনিজিং কমিটির সদস্যদের না জানিয়ে স্কুল প্রাঙ্গণে সেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনাসভা করা নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। রাতের আঁধারে স্কুল প্রাঙ্গণে এ আলোচনাসভার আয়োজন করায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিরোধ দেখা দিলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনা সভা প- হয়ে যায় এবং দু’পক্ষের উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। সংবাদ পেয়ে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।
মাদারহুদা গ্রামসূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার আলমডাঙ্গার জেহালা ইউনিয়নের মাদারহুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনাসভা চলছিলো। এ সময় স্কুলের ম্যনিজিং কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম স্কুলে গিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের কাছে জানতে চান, স্কুলের শ্রেণিকক্ষের চাবি কোথায় পেলেন এবং কার অনুমতিতে স্কুলে আলোচনা সভা করছেন? এ নিয়ে নিয়ে গ্রামের আওয়ামী লীগের নেতা কর্মী ও সাধারণ গ্রামবাসীর মধ্যে বাগবিত-া বাধে। এক পর্যায়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা স্কুল ত্যাগ করে চলে আসেন। এছাড়া সন্ধ্যা ৭টার দিকে বড়পুটিমারী গ্রামের বটতলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা সমাবেত হন। পরে দলের নেতা-কর্মীরা মুন্সিগঞ্জ পশুহাটস্থ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে পড়লে সংবাদ পেয়ে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলমগীর খান, ওসি তদন্ত লুৎফুল কবীর, সেকেন্ড অফিসার এসআই জিয়াউর রহমান, এসআই জিয়াউল হক, এসআই গিয়াস, এসআই ইকরামসহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন ও নেতা-কর্মীদের শান্ত করে বাড়ি পাঠিয়ে দেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাদারহুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম মাথাভাঙ্গাকে বলেন, গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে আমাদের কিছু না জানিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা শ্রেণিকক্ষের তালা ভেঙে বেঞ্চ বাইরে বের করে আলোচনার আয়োজন করে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও গ্রামবাসী আলোচনা সভা ভন্ডুল করে দেয়।


আরো দেখুন

জীবননগর ও দামুড়হুদার মন্দিরের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে নজরুল মল্লিক

উৎসব পালন করুন আনন্দ আর উল্লাসের সাথে জীবননগর ব্যুরো: শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে দামুড়হুদা ও জীবননগর …

Loading Facebook Comments ...