সাহিত্য পাতা

টিপ্পনী

ওখান থেকে সরুন শুনুন কথা আগাম; ধরবো এবার রাজনীতিবিদ শিক্ষকদের লাগাম। ঘোড়ার মতোন বাগিয়ে ধরে শক্ত দড়ি লাগিয়ে ধরে টানবো জোরে বেশ; রাজনীতি হোক শেষ। মাথা খাটান মাস্টারিতে নিজের কাজে হাত দিন এখন থেকে রাজনীতিকে এক্কেবারেই বাদ দিন। পড়ান এবং পড়–ন; রাজনীতি তো নেতার জিনিস ওখান থেকে সরুন। সূত্র: ( …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

মাদকের মানে মাদকের জালে কেন আটকালে বেরুনোর পথ খোঁজো তুমি নাকি খুব বোঝো তবু এসে সরাসরি ধরা খেলে চালে? বেশুমার খোরে খায় আর ঘোরে অবশেষে জানা যায় মদ গাঁজা আনা যায় বাবুদের দেশ থেকে বস্তায় ভরে। যদি খাও তাড়ি ফুটো হবে নাড়ি বদনাম হবে খুবই এ হারাম কোথা থুবি আগে …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

গুড্ডু মশাই গুড্ডু মশাই খাবল বসায় কচি শশায় আহা মধুর খুশির চোটে শরীর রসায় কিন্তু সেদিন পড়েন ধরা কী আর করা ঘা প্যাদানি খেয়ে বেহাল করুণ দশায়। চুরুট ফোঁকেন নস্যি শোঁকেন ঘরে ঢোকেন লাগে না তার অনুমতি টিকিট টোকেন বলেন তিনি পরের বধূ বেজায় মধু জাগলে বুকে খায়েশ সেদিক জলদি …

আরো পড়ুন »

এটাই বড় ভয় শক্ত হাতেই বাঁধা মাগার ফসকা ছিল গেরো, এক পুলিশে ধরলো এবং অন্যটা কয় বেরো। আরেক পুলিশ করলো তাড়া বললো ব্যাটা একটু দাঁড়া আসামি কয় বাড়ি ফিরে বাপ রে বাবা কাটলো ফাঁড়া। ধরলে কেন ছাড়লে কেন প্রশ্ন করেন অনেকে বুদ্ধি জোগায় কাছে গিয়ে আসামিদের মনে কে? আসামিদের ধরার …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

জুড়িয়ে নেন কাজের বেলায় ফাঁকি দিয়ে পয়সা কড়ি হাতিয়ে নেন, পড়লে ধরা পরের সাথে খাতির ও ভাব পাতিয়ে নেন। নকল ভুয়া সই স্বাক্ষর করেও টাকা বাগিয়ে নেন, এক রাস্তায় জন লাগিয়ে অন্য পথে ভাগিয়ে নেন। এতে কী আর ক্ষতি আছে সরকারি মাল খসিয়ে নেন, হেসে হেসে ভাব জমিয়ে পুরো তবিল …

আরো পড়ুন »

দিচ্ছি না তো ফোঁস

  মানীর যে আর মান থাকে না ফেনসিডিলের জ্বালায়, আসছে তাহা বুক পকেটে ঢুকছে ঘরে ছালায়। কার বা এসব ধাতে কুলোয় রাখছি সেরে আলনা-চুলোয় খায় ঢকাঢক ছেলে, মাঝে মাঝে ধরা পড়েও যাচ্ছে লোকে জেলে। তবু রসের কী জোশ আছে কী মধু স্বাদ পায়, হাজত থেকে ফিরে আবার ও চিজ মুদোম …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

বুঝছি হাড়ে হাড়ে আসে রোজার মাস; ব্যাগভর্তি কেনাকাটা মানেই সে এক বাঁশ। পেঁয়াজ রসুন আলু মরিচ চিনির বাড়ে দর, মাছ মুরগি গরু খাসির বাজার ভয়ঙ্কর। সাবান সোডার দামও বাড়ে আগুন নিত্যপণ্য, তার ওপরে নকল ভেজাল ব্যবসা কী জঘন্য! চান্দাবাজি ধান্দাবাজি রোজায় অধিক বাড়ে, ঈদের আগাম বার্তা আমি বুঝছি হাড়ে হাড়ে। …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

ক্লিনিকেই মরে ক্লিনিকের লোকরা নাকি চেনেন শুধু টাকা এইখানে সব অপারেশন কেন যাবেন ঢাকা। এইখানে ঘাড় মুখ কাটা হয় দাবনা হাঁটু বুক কাটা হয় আর চেরা হয় পেট, নাড়ি লিকের অস্ত্রোপচার শায়েস্তা খাঁর রেট। কিন্তু রোগী বাঁচবে কি না গ্যারান্টি নেই তার, বাঁচলে বেঁচে যেতেও পারে মুখটা কেন ভার? আয় …

আরো পড়ুন »

টিপ্পনী

করলে এমন পাল্টে গেছে দিন কাল সব ওরে এখন কি আর বিল নেয়া যায় বেন্ধে এবং ধরে। ভুয়া নকল বিল পাঠাবা মানুষও তা দেবে, তোমার বুঝি হচ্ছে না ঘুম এসব ভেবে ভেবে। কিন্তু সবাই বুঝে গেছে তোমার এ কারসাজি, ভুতুড়ে বিল দিতে এখন কেউ হবে না রাজি। একটা কথা জেনে …

আরো পড়ুন »

টিপ্প্নী

ভাঙতে ক’দিন বাকি রাস্তা ঘাটের এ কী দশা দেখার কি নেই কেউ, ঠিকাদারের পোয়াবারো খেয়ে ঢেঁকুর; হেউ। খাচ্ছে যারাই আগাগোড়া পাচ্ছে তারাই ফুলের তোড়া কত্ত রকম ভড়ক; ক’দিন পরেই ভেঙেচুরে আগের দশায় সড়ক! খোয়ায় ফাঁকি ইটে ফাঁকি ফাঁকির কলে বালু; কারণ ওরা চালু। পিচের বদল মবিল ঢালেন রাস্তাতে কী ফাঁকি, …

আরো পড়ুন »