দেশ বিদেশের এক গুচ্ছ সংবাদ

হু’কে ফের হুমকি ট্রাম্পের : ৩০ দিনের আল্টিমেটাম
মাথাভাঙ্গা মনিটর: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডব্লিউএইচও) ফের হুমকি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে ‘উল্লেখযোগ্য সংস্কার’ না ঘটালে সংস্থাটিতে যুক্তরাষ্ট্র স্থায়ীভাবে অর্থায়ন বন্ধ করে দেবে বলে হুমকি দেন মার্কিন এ প্রেসিডেন্ট। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিচালক টেড্রোস আধানম ঘ্যাব্রিয়াসুসকে চার পৃষ্ঠার পাঠানো চিঠিতে ট্রাম্প তার কড়া সমালোচনা করে এসব হুমকি দেন। ট্রাম্প চিঠিতে দাবি করেছেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং টেড্রোস আধানম ঘ্যাব্রিয়াসুসকে করোনা প্রাদুর্ভাবকে শিগগরই জরুরি অবস্থা ঘোষণা না দিতে চাপ দিয়েছেন। ট্রাম্প বলেন, হু চীনের সেই কথা শুনেছে তবে পরবর্তীতে তারা গতিপথ পরিবর্তন করে। এছাড়া ট্রাম্প বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে চীনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশংসা করে আসছে। টেড্রোস আধানম ঘ্যাব্রিয়াসুসকে চিঠি পাঠানো ছাড়াও ট্রাম্প তার টুইটারে চিঠির ছবি তুলে পোস্ট করেছেন। টুইটে ট্রাম্প লেখেন, উহান থেকে গত বছর ভাইরাস যে ভাইরাস ছড়িয়েছে সেটি নিয়ে বিশ্বাসযোগ্য প্রতিবেদন ধারাবাহিকভাবে উপেক্ষা করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওই টুইট বার্তায় ট্রাম্প বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে চীনের হাতের পুতুল বলেও আখ্যায়িত করেন।
বেলুচিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় সাত সেনা নিহত
মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাকিস্তানের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ বেলুচিস্তানে আলাদা দুই হামলায় অন্তত সাত সেনা নিহত হয়েছেন। বিচ্ছিন্নতাবাদে জর্জরিত অঞ্চলটিতে সোম ও মঙ্গলবার এই সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। দেশটির আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রদেশটির রাজধানী কোয়েটার পীর গায়েব এলাকায় সেনাদের গাড়িতে বোমা বিস্ফোণে ছয় সেনা নিহত হন। নিয়মিত টহলের দায়িত্ব পালন করতে তারা ক্যাম্প থেকে ফিরছিলেন। নিহতরা হলেন নায়েক সুবেদার ইহসান উল্লাহ খান, নায়েক জুবায়ের খান, নায়েক ইজাজ আহমেদ, নায়েক মৌলা বক্স, নায়েক নূর মোহাম্মদ ও আবদুল জব্বার। এছাড়া সোমবার ইরান সীমান্তের মান্ড এলাকায় সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গুলি বিনিময়ে আরও এক সেনা নিহত হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে অঞ্চলটিতে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিচ্ছিন্নতাবাদের সহিংতা বাড়ছে। চলতি মাসের শুরুতে একই ধরনের হামলায় ছয় সেনা নিহত হয়েছিলো। বেলুচ লিবারেশন আর্মি(বিএলএ) ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিলো।
করোনা আতঙ্কের মধ্যেই চীনে ভূমিকম্প : নিহত ৪
মাথাভাঙ্গা মনিটর: করোনা আতঙ্কের মধ্যেই চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইউনান প্রদেশে ভূমিকম্পে কমপক্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৩ জন। গতকাল মঙ্গলবার স্থানীয় সরকারের পক্ষ থেকে এমনটি বলা হয়েছে। জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যায় রিখটারস্কেলে ৫.০ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে ইউনান প্রদেশের ঝাওতোং শহরে। শহরটিতে প্রায় ৬০ লাখ মানুষ বসবাস করে। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম শিনহুয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, ভূমিকম্পের পর দমকল বাহিনীর কর্মীদের দিয়ে উদ্ধার কাজ চালানো হচ্ছে। চীন একটি ভূমিকম্প প্রবণ দেশ। ২০০৮ সালে চীনের সিচুয়ানে রিখটারস্কেলে ৭.৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানার পর প্রায় ৮৭ হাজার মানুষ মারা গিয়েছিলেন।
ভারতের হায়দরাবাদের সড়কে চিতাবাঘের কবলে মানুষ
মাথাভাঙ্গা মনিটর: দুজন লোক ছুটে আসছে সড়কে। চিৎকার করছে। যে দিক দিয়ে লোক দুটি সড়কে দৌড়ে আসে সেখান দিয়েও একটি চিতাবাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে। বাঁচার জন্য ছোটাছুটি শুরু করে লোকগুলো। এমনই এক ঘটনা ভারতের হায়দরাবাদের সড়কে। ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ এখন ভাইরাল। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, চিতাবাঘ দুজন লোককে ধাওয়া করছে। তাদের মধ্যে একজন চিতাবাঘের কবল থেকে বাঁচতে একটি ট্রাকের উপরে ঝাঁপিয়ে ঢুকে পড়েন। অন্য ব্যক্তি তাকে অনুসরণ করে ট্রাকে ওঠার চেষ্টা করার সময় চিতাবাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে দ্বিতীয় ব্যক্তির পা কামড়ে ধরে। ভাগ্যক্রমে, ওই ব্যক্তিটি চিতার গ্রাস থেকে বেঁচে রাস্তার ধারে পার্ক করা লরিতে উঠতে সক্ষম হন। তারপর স্থানীয় কুকুরের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে চিতাটিকে কোণঠাসা করে। কুকুরেরা যতো ঘেউ ঘেউ করতে থাকে ততই চিতাবাঘটিকে পাঁচিলের উপরে লাফিয়ে ওঠার চেষ্টা করতে দেখা যায়। পালানোর আগে কুকুরগুলোর প্রতি গর্জনও করে চিতাটি।

ফেরিঘাটে আটকে পড়াদের নিজের অবস্থানে ফিরে যেতে হবে
স্টাফ রিপোর্টার: পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) বলেছেন, নিষেধাজ্ঞা স্বত্ত্বেও গ্রামের বাড়ি ফেরার উদ্দেশে যারা রওনা দিয়ে ফেরিঘাটে আটকে পড়েছেন তাদেরকে নিজেদের অবস্থানে ফিরে যেতে হবে। ফেরিঘাটে আটকেপড়াদের অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারা দয়া করে যে যেখানে ছিলেন সেখানে ফিরে আসুন। যারা আটকে আছেন তাদের ঢাকায় ফেরার জন্য পুলিশ প্রয়োজনে সহায়তাসহ সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বেনজীর আহমেদ এসব কথা বলেন। আসন্ন ঈদুল ফিতর ও করোনা মহামারি নিয়ে আইনশৃংখলা বিষয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সরকারি নির্দেশনা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে আইজিপি বলেন, আমাদেরকে মনে রাখতে হবে বেঁচে থাকলে আরও অনেকবার পরিবারের সঙ্গে ঈদ করা যাবে। কিন্তু মারা গেলে কিংবা করোনা আক্রান্ত হলে এখানেই শেষ। তাই আমরা অনুরোধ জানাচ্ছি।
রাজবাড়ীতে স্পিরিট’ পানে প্রাণ গেলো দুজনের
স্টাফ রিপোর্টার: রাজবাড়ীতে মঙ্গলবার রেক্টিফাইড স্পিরিট পানে দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তারা হলেন শহরের বিনোদপুর এলাকার বাসিন্দা মিঠু (৪০) ও সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপ্রসাদপুর গ্রামের বাসিন্দা ইউসুফ আলী (৭০)। স্থানীয়রা জানায়, ইউসুফ আলী রাজবাড়ী রেল স্টেশন এলাকায় ফুটপাতে কলা বিক্রি করতেন। মিঠু রেল স্টেশনে পান সিগারেট বিক্রি করতেন। তারা বেশ কিছুদিন ধরেই স্থানীয় একটি হোমিও দোকান থেকে স্পিরিট সংগ্রহ করে পান করতেন। সোমবার সন্ধ্যার পর তারা স্পিরিট পান করে যে যার বাড়ি যান। মঙ্গলবার ভোরে দিকে ইউসুফ বাড়িতেই মারা যান। অপরদিকে মিঠু অসুস্থ হয়ে পড়লে দুপুর ১২টার দিকে তাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যাত্রী পারাপার : পদ্মায় ট্রলারডুবি
স্টাফ রিপোর্টার: মানিকগঞ্জ পাটুরিয়া দৌলতদিয়া নৌরুটের পাটুরিয়া ফেরিঘাটের ৫নং পন্টুন এলাকায় যাত্রী বোঝাই ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। শেষখবর পাওয়া পর্যন্ত ডুবে যাওয়া যাত্রীদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যার একটু আগে এই ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে। তবে কতোজন যাত্রী নিয়ে ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিশ্চিত করে পাটুরিয়া নৌ-থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লাভু মিয়া জানান, পাটুরিয়া ঘাটে লঞ্চ ও ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে করে পদ্মা পারাপারের চেষ্টা করে কিছু যাত্রী। পরে ফেরিঘাটের ৫নং পন্টুন এলাকায় ট্রলারটি ডুবে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। এ পর্যন্ত ৮ যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কতজন যাত্রী নিয়ে ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি তিনি।
ঈদের আগে আর হচ্ছে না এসএসসির ফল ঘোষণা
স্টাফ রিপোর্টার: করোনা ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে গোটা পৃথিবী। বিশেষ করে শিক্ষাঙ্গন যেন মুখ থুবড়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ। ঈদের আগেই এসএসসির ফল দেয়ার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও তা আর হচ্ছে না। করোনাকালে সবকিছু থমকে গেছে। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন সেপ্টেম্বরের আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না খোলার জন্য। এমন পরিস্থিতিতে আটকে গেছে এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ। গতকাল মঙ্গলবার শিক্ষাবোর্ড থেকে জানানো হয়েছে সব প্রস্তুতি থাকলেও ঈদের আগে আর দেয়া হচ্ছেনা এসএসসির ফলাফল। এবার এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশে প্রতিবারের মতো থাকবে না তেমন আনুষ্ঠানিকতা। করোনার জন্য মোবাইলের এসএমএস বা অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজে পাওয়া যাবে ফলাফল। সোমবার থেকে প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যারা এই প্রাক নিবন্ধন করবে, তারা প্রথম দিকে ফল পাবে। তবে আগের মতো নির্ধারিত পদ্ধতিতেও খুদে বার্তায় ফল জানা যাবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More