দর্শনা ট্রাক-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ : রাজমিস্ত্রি কাজলের মর্মান্তিক মৃত্যু

দর্শনা অফিস: দর্শনায় ট্রাক-মোটরসাইকেলের সংষর্ষে দক্ষিণচাঁদপুরের রাজমিস্ত্রি কাজলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে দর্শনা-জীবননগর সড়কের দর্শনা ফিলিং স্টেশনের অদূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘাতক ট্রাক উদ্ধার করে থানা পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। রাতে দফায় দফায় আপস-রফার বৈঠক করা হয়। দীর্ঘসময় বৈঠক শেষে রাত ১২টার দিকে ৬০ হাজার টাকায় আপস করা হয়েছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।
জানা গেছে, দর্শনা দক্ষিণচাঁদপুর টাওয়ারপাড়ার ফেরদৌস আলীর ছেলে কাজল (২৬) গতকাল মঙ্গলবার সকালে মোটরসাইকেল যোগে রাজমিস্ত্রির কাজে জীবননগরের পেয়ারতলায় যান। কাজ শেষে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সহকর্মী ইসমাইল নিয়ে ফিরছিলেন বাড়িতে। পথিমধ্যে দর্শনা-জীবননগর সড়কের দর্শনা ফিলিং স্টেশনের অদূরে পৌঁছুলে বিপরীত দিক যাওয়া একটি ট্রান্সপোটের ট্রাকের মুখোমুখি ধাক্কা লাগে। মোটরসাইকেল থেকে পিচ রাস্তায় ছিটকে পড়েন কাজল ও ইসমাইল। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নেয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজলকে মৃত বলে ঘোষণা দেন। আহত ইসমাইলকে দেয়া হয় চিকিৎসা। ঘাতক ট্রাক ফেলে পালিয়ে যায় আনাড়ি চালক। স্থানীয়দের সহযোগিতায় দর্শনা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে (যশোর-ট-১১-২৪৩৫) রেজি. নাম্বারের ট্রাকটি উদ্ধার করে। সন্ধ্যায় ট্রাকের মালিক পক্ষ আপস-মিমাংসার জন্য হাজির হয় কাজলের বাড়িতে। সন্ধ্যা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে কয়েক দফা বৈঠক করা হয়। শেষ পর্যন্ত ৬০ হাজার টাকায় রফা হয় বলে জানা গেছে। ট্রাকটি ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার কুষ্ণা ইউনিয়নের হরেনদি গ্রামের মকতেজ আলী ম-লের ছেলে জিয়াউর রহমান বাবুর। জে.কে ট্রান্সপোটের মালামাল দর্শনা রেলবাজারের বটতলায় আনলোড করে ফিরছিলো। কোটচাঁদপুর বলহার ইউনিয়নের ঢালিপাটা গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে সজল ট্রাকের প্রকৃত চালক। তিনি অসুস্থতার কারণে বাড়ি বিশ্রামে থাকায় একই গ্রামের শামসুল হকের ছেলে হেলপার বাদশা ট্রাক চালিয়ে দর্শনায় এসেছিলেন। এদিকে কাজলের অকাল মৃত্যুতে পরিবার জুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। রাতে নিহত কাজলের লাশের নামাজে জানাজা শেষে দাফনকাজ সম্পন্ন করেছে পরিবারের লোকজন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More