অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই

স্টাফ রিপোর্টার: অভিনয় শিল্পী কেএস ফিরোজ মারা গেছেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনি ঢাকার সিএমএইচে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) ভোরে মারা যান তিনি।
নাট্যদল ‘থিয়েটার’–এর সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে অভিনয়ে কে এস ফিরোজের পথচলা শুরু। এই দলের হয়ে তিনি অভিনয় করেছেন ‘সাত ঘাটের কানাকড়ি’, ‘কিং লিয়ার’ ও ‘রাক্ষসী’ নাটকে। জোহরের নামাজের পর বনানী কবরস্থানে কে এস ফিরোজকে দাফন করা হয়।
কে এস ফিরোজ ১৯৬৭ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। মেজর হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে ১৯৭৭ সালে সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেন। তাঁর পুরো নাম খন্দকার শহীদ উদ্দিন ফিরোজ। তিনি ১৯৪৬ সালের ৭ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন। বরিশালের উজিরপুরের মশাং গ্রামে তাঁদের আদি নিবাস হলেও ফিরোজের জন্ম ঢাকার লালবাগে। তাঁর বাবার নাম এ জে এম সাইদুর রহমান। তবে এলাকার মানুষ তাঁর বাবাকে উজির মিয়া নামেই চিনতেন। কে এস ফিরোজের মা রাবেয়া খাতুন। ফিরোজ ১৯৭৪ সালের ১ নভেম্বর বিয়ে করেন। তিনি স্ত্রী মাধবী ফিরোজ এবং তিন মেয়ে রেখে গেছেন।
কে এস ফিরোজ প্রথম ‘লাওয়ারিশ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এরপর বহুদিন বিরতি নেন চলচ্চিত্র থেকে। আবু সাইয়ীদের ‘শঙ্খনাদ’, ‘বাঁশি’, মুরাদ পারভেজের ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’তে অভিনয় করেন। টিভিতে তাঁর প্রথম আলোচিত নাটক জিয়া আনসারী প্রযোজিত ‘প্রতিশ্রুতি’। কে এস ফিরোজের মৃত্যুতে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন, অভিনয় শিল্পী সংঘসহ বেশ কিছু সংগঠনের পক্ষে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। শোক প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেকেই।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More