মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধরে রাখাই হোক ৭ মার্চের প্রত্যয়

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরসহ সারাদেশে নানা আয়োজন

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক:
নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ দিবস পালিত হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরসহ সারাদেশে সরকারিভাবে নানা কর্মসূচির পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন দিনটি উপলক্ষ্যে কর্মসূচির আয়োজন করে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল-বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, আলোচনা সভা, আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, দুস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ, দোয়া ইত্যাদি। এসব কর্মসূচিতে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধু ও ৭ মার্চের চেতনায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। এদিকে দিনটি উপলক্ষ্যে সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আওয়ামী লীগ, সহযোগী সংগঠন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকসহ সর্বস্তরের মানুষ বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে ভিড় জমায়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের মহাকাব্যিক ভাষণ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মৌলিক ভিত্তি। এ ভাষণে বঞ্চনার অবসানে বাঙালির বিজয়ের কথা বলেছেন বঙ্গবন্ধু। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ ধরে রাখাই হোক ৭ মার্চের দৃপ্ত প্রত্যয়। ‘মার্চ বাঙালি জাতির ইতিহাসে মহাকাব্যিক মাস। এ মাসেই ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু কার্যত গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার মন্ত্রে দীক্ষিত করেছিলেন।’ বক্তারা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ এখন ইউনেস্কোর মূল্যবান দলিলের অংশে পরিণত হয়েছে। সারা দুনিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ শ্রদ্ধার জায়গা করে নিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় যারা বিশ্বাস করি, দলমত নির্বিশেষে আমাদের মৌলিক ভিত্তি ৭ মার্চের ভাষণ। অথচ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর এ দেশে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধ করা হয়েছিলো। এ ভাষণ প্রচারকারীদের নিষ্ঠুরভাবে পিটিয়ে মারা হয়েছিলো। আর্কাইভ থেকে এ ভাষণ নষ্ট করে ফেলা হয়েছিলো। এভাবে বঙ্গবন্ধুর অস্তিত্বকে বিনাশ করে ফেলার চেষ্টা হয়েছিলো। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২১ বছর রাজপথের আন্দোলন-সংগ্রামের পর আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সুপ্রতিষ্ঠিত হয়।’

 

চুয়াডাঙ্গায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার মাধ্যমে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মাসুদউজ্জামান লিটু বিশ্বাস, দফতর সম্পাদক অ্যাড. আবু তালেব বিশ্বাস, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরশাদ উদ্দীন আহমেদ চন্দন, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মো. নুরুল ইসলাম মালিক, উপ-প্রচার সম্পাদক মো. শওকত আলী বিশ্বাস, কার্য নির্বাহী সদস্য অ্যাড. বেলাল হোসেন, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, পৌর সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এর সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকগণ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদিকা নুরুন্নাহার কাকলী, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রিনা, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদী মিলি, জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি রুকসানা নাবিলা ছন্দা, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া শাহাব, মহিলা নেত্রী শেফালী খাতুন, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আফরোজা পারভীন, সাধারণ সম্পাদক গিণি ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলিজা খাতুন ও জাহানারা খাতুন, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. আফজালুল হক বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক মো. রিপন ম-ল, জেলা কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম চন্দন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু, যুবলীগ নেতা আব্দুল কাদের, রাশেদুজ্জামান বাকী, মিরাজুল ইসলাম কাবা, রেজাউল করিম, আব্দুর রশিদ, শাকিল আহমেদ টিপু, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা ও জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য কাজল রেখা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. আজাদ, সাবেক সহ-সভাপতি মো. সাহাবুল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানিম হাসান তারেক, রাজু আহমেদ, সোয়েব রিগান, সোহেল, রকি, মিন্টু, রিয়ন প্রমুখ। বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা প্রশাসক আমিনুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সিভিল সার্জন সাজ্জাৎ হাসান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম ভুইয়া, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস,ওজোপাডিকো চুয়াডাঙ্গার নির্বাহী প্রৌকশলী মঈন উদ্দিন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু হোসেন প্রমুখ। এছাড়াও গণপূর্ত বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, এলজিইডি, জনস্বাস্থ্য ও প্রখৌশল অধিদপ্তর, উপ-কর অধিদপ্তর, জেলা নির্বাচন অফিস, জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার, বিআরডিবি, ভি.জে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজ, বিআরটিসি, টিটিসি, ঝিনুক মাধ্যমিক বিদ্যালয়, অরিন্দম, জেলা সমবায় কার্যালয়, ওজোপাডিকো লিমিটেড, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, তুলা উন্নয়ন বোর্ড, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজ, সড়ক বিভাগ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সরকারি কেনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, জেলা কারাগার, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ, জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়, রাহেলা খাতুন গার্লস একাডেমীসহ বিভিন্ন সংগঠন শ্রদ্ধা জানায়।
এদিকে, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ বেলা ১১টায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করে। সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনাসভা ও বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরের ডিসি সাহিত্য মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরীন। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সি আবু সাঈফের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আজিজুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. রেজাউল করিম, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ। পরে, বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে রচনা, কবিতা, চিত্রাংকন, নৃত্য এবং বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। রাতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ছাদ থেকে এক অসাধারণ আতশবাজির আয়োজন করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগ দলীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় উত্তোলন করেন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক জেলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান জিল্লু। পতাকা উত্তোলন শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের সকল শহিদ ও জাতীয় চার নেতাসহ সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগ সদস্য আজাদ আলী, হাফিজুর রহমান হাপু, সাজেদুল ইসলাম লাভলু, আবু বক্কর সিদ্দীক আরিফ, আলমগীর আজম খোকাসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মী।
অপর দিকে, চুয়াডাঙ্গা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ কেদারগঞ্জস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনসহ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নেতা কর্মীরা। উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল হালিম ভুলন শেখ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুন আহমেদ, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য গাজী ইমদাদুল হক সজল, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসান নিপ্পন, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দিশান, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ নেতা আকিব জাভেদ, সজিব, সাইফুল, সালেকিম, সাব্বির, অনিক, নাজমুল প্রমুখ।

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন,  চুয়াডাঙ্গার সরোজগঞ্জ তেতুল শেখ কলেজের উদ্যোগে আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজি আব্দুল্লাহ শেখ, সদস্য জালাল উদ্দিন মহর, কলেজের অধ্যক্ষ মারফুল হক, সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম কিবরিয়া, প্রভাষক শাহারিয়ার ইসলাম, খাইরুল ইসলাম, আবুজার হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, ফারুখ আহম্মেদ, রেজাউল করিম, আবুশামা, তাছলিমা পারভীন, আরিফ হোসেন, সুরুজ আলম, হারুনুর রশীদ, রাকিবুল হাসান, মোস্তফা শওকত ইমরান, ফারহানা পারভীন, মনিরা পারভীন, সাইফুল ইসলাম, সহকারী গ্রন্থগারিক জহুর রায়হান, এনামুল হক, সাইদুর রহমান, রাজিবুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, রকিব হুসাইন, আশরাফুল আলম, তরিকুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রভাষক রমিজ রায়হান।

বেগমপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার হিজলগাড়ী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করনে প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন স্বপন। আলোচনা করেন সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী হোসেন, শিক্ষক সফিকুল ইসলাম, ওয়াজেদ আলী, আবুল হোসেন, আ.কুদ্দুস, সাজেদুর রহমান, আজিজুল হক, শাহাবুদ্দিন, মাসুদ রানা, শাহানাজ পারভীন, শেফালী খাতুন, মিতা বিশ্বাস প্রমুখ।

গড়াইটুপি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার খাড়াগোদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাহারুল ইসলাম। প্রধান অতিথি ছিলেন গড়াইটুপি ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান রাজু। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা লাল মোহাম্মদ, আওলাদ বিশ্বাস, সিরাজুল ইসলাম, আ.লীগ নেতা এএসএম খালেকুজ্জামান মাস্টার, ইউপি সদস্য সাইদ খোকন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হারুন অর রশিদ।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায় দিবসটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৮টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনাসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আব্দুর রশিদ মোল্লা। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি প্রশান্ত অধিকারী, বন ও পরিবেশ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আনিসুজ্জামান মল্লিক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগী লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী খালেদুর রহমান অরুন, আতিয়ার রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবু মুসা, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুক, যুগ্মসম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, জেলা পরিষদের সদস্য মিজানুর রহমান মিজান, পৌর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বিশ^জিৎ সাধুখাঁ। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার।
অপরদিকে, সকাল সাড়ে ৯ টায় আলমডাঙ্গা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূর, উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আব্দুর রশিদ মোল্লা, অগ্নি সেনা বীর মুক্তিযোদ্ধা মঈন উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ জকু। এরপর আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনাসভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার জেহালায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসানুজ্জামান হান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি আনসার আলী মাস্টার, ইসলাম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মঈন উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা কুতুবউদ্দিন, নয়ন প্রমুখ। জেহালা ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে পৃথকভাবে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান শিলন, যুগ্মআহবায়ক হারুন-অর-রশিদ বকুল, যোগেন্দ্রনাথ দোবে হিরালাল, আনারুল ইসলাম প্রমুখ।
অপরদিকে, খাদিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের হলরুমে আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান মোজাহিদুর রহমান জোয়ার্দ্দার লোটাস। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার জাতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য হাফিজুর রহমান জোয়ার্দ্দার। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান বাবলু, সহ-সভাপতি আমিরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা লিটন মাস্টার, মুকুল জোয়ার্দ্দার, মামুন হোসেন, জামাল, বাদশা, জিয়া, ইউপি সচিব কুমার সাহা প্রমুখ।

আসমানখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক ভাষণ উপলক্ষে জেলা পরিষদ সংরক্ষিত সদস্য কাজল রেখা গাংনী, ভাবাড়িয়া ও কুমারী ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান মেম্বারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও দেওয়ালঘড়ি বিতরণ করা হয়। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন গাংনী ইউপি সচিব মোফারেফ হোসেন, ইউপি সকল সদস্য, ভাংবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান ও কুমারী ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ পিন্টু। এদিকে আসমানখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও চিত্রাঙ্কন অনুষ্ঠিত হয়েছে সভায় সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম, প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয়ের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য রকিবুল হাসান প্রমুখ।

দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও দোআ অনুষ্ঠিত হয়। দামুড়হুদা উপজেলা সমবায় অফিসার হারুন অর রশিদের সঞ্চালনায় পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ-প্রশাসন, উপজেলা বীর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, দামুড়হুদা মডেল থানা, দর্শনা থানা, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন পরিষদ, আব্দুল ওদুদ শাহ্ ডিগ্রি কলেজ, দামুড়হুদা ফায়ার স্টেশন, দামুড়হুদা গালর্স স্কুল এন্ড কলেজ, উপজেলা হিসাবরক্ষন অফিস। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা পরিষদ মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাছলিমা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলি, বীর মুক্তিযোদ্ধা আছির উদ্দীন, বীর মুক্তিযোদ্ধা তমছের আলি, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা খাতুন। এ সময় অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি ফেরদৌস ওয়াহিদ, দর্শনা থানার ওসি এইচএম লুৎফুল কবির, জেলা পরিষদ সদস্য শফিউল কবির ইউসুফ, দামুড়হুদা প্রেসক্লাব সভাপতি এম নুরুন্নবী, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হযরত আলী, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হোসনে জাহান ববি প্রমুখ। আলোচনাসভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন দামুড়হুদা উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পবৃন্দরা।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, দর্শনায় সোমবার সকালে দর্শনা পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনসহ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এ সময় সংক্ষিপ্ত সভায় আলোচনা করেন দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, আ.লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, বিল্লাল হোসেন, আজাদ হোসেন, আব্দুল হাকিম, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আ. হান্নান ছোট, সহসভাপতি সোলাইমান কবির, সহসম্পাদক আব্দুল মান্নান খান, দর্শনা পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক, শেখ আসলাম আলী তোতা, সহসভাপতি মামুন শাহ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম মল্লিক, দর্শনা পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ববি, পৌর কাউন্সিলর মনির সরদার প্রমুখ।

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল করিম বিশ্বাসের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল কাদের বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক নজির আহম্মেদ, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুর রহমান মুকুল, মখলেছুর রহমান রিপন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাসেম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা পীর মোহাম্মদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা পিজির উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইমসাইল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোলাম হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবর আলী প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জীবননগরে গতকাল সোমবার বেলা ১০টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল ইসলাম শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন। এরপর উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা, জীবননগর থানা, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, উপজেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানো হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হুমায়ুন কবির, জীবননগর থানার ওসি আব্দুল খালেক, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। এর আগে সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর উপজেলা আওয়ামী লীগ কর্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুরে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। গতকাল সোমবার সকাল ৮টার দিকে মেহেরপুরে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি’র বাসভবনের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে দিনের সূচনা করে জেলা আওয়ামী লীগ। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক, সহসভাপতি আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, যগ্মসম্পাদক অ্যাড. এসএম ইব্রাহীম শাহীন, জেলা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক সরফরাজ হোসেন মৃদুলসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও দিনটি উৎযাপন উপলক্ষে এদিন সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসন চত্বরে বিশেষভাবে তৈরি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খাঁন ও এরপর পুলিশ সুপার মো. রাফিউল আলম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. গোলাম রসুল, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম, পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, মেহেরপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শাফিউল আলম সর্দ্দার, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রফিকুল ইসলাম, মেহেরপুর টিটিসি’র পক্ষে অধ্যক্ষ আরিফ আহমেদ, মেহেরপুর ছহি উদ্দিন পৌর ডিগ্রি কলেজের পক্ষে অধ্যক্ষ একরামুল আজিম, মেহেরপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের পক্ষে অধ্যক্ষ মহা. আখতারুজ্জামান, মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রফিকুল ইসলাম, মেহেরপুর বন বিভাগের পক্ষে জাফর উল্লাহ, জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পক্ষে পরিদর্শক আব্দুল মান্নান, মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পক্ষে উপসহকারী পরিচালক নজমুজ্জামান, জেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা রাকিবুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা লাভলী ইয়াসমিন প্রমুখ। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।
এদিকে দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তার সভাপতিত্বে আলোচনা শেষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া এদিন সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়।

মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগর কমপ্লেক্স চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন মুজিবনগর উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউদ্দীন বিশ্বাস, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার, মুজিবনগর থানার ওসি মো. মেহেদী রাসেল। এছাড়াও মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউদ্দীন বিশ্বাস, মুজিবনগর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, ট্যুরিস্ট পুলিশ মুজিবনগর, আনসার ভিডিপি মুজিবনগর, বন বিভাগ মুজিবনগরসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন। পরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার। উপস্থিত ছিলেন ওসি মো. মেহেদী রাসেল, কৃষি অফিসার আনিছুজ্জামান খান, সমাজ সেবা অফিসার আব্দুর রব প্রমুখ। অপর দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়াজনে উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউদ্দীন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা খাতুন, উপজেলা আ‘লীগের যুগ্মসম্পাদক সোহরাব হোসেন, মহাজনপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি রেজাউর রহমান নান্নু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ বল্টু, বাগোয়ান ইউপি আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দিন মল্লিক প্রমুখ।
অপরদিকে, বাগোয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়াজনে সন্ধ্যা রাতে মুজিবনগর পর্যটন মটেল হলরুমে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। বাগোয়ান ইউপি আ.লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান মধুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আ.লীগের সদস্য রফিকুল ইসলাম তোতা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ.লীগের যুগ্মসম্পাদক নাসিরউদ্দীন বাবলু, মোনাখালী ইউপি আ.লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফা, দারিয়াপুর ইউপি আ.লীগের সভাপতি মোস্তাকিম হক খোকন কমান্ডার, সাধারণ সম্পাদক মঈনুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুল হাসান চাদু, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি শাহওয়ালী উল্লাহ সোহাগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান মতিন, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আবুল কালাম প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More