করোনায় দেশে আরো ২৩ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৩ জন। আর এই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩০৮ জন। এই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৪৪ জন। গত রোববার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, নতুন করে ১১ হাজার ৭৫৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আর পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ১০৩টি। এ নিয়ে দেশে মোট ২২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৮৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় নতুন করে শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৭৮ শতাংশ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১ হাজার ৩০৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৯৮ হাজার ৮১৫ জন। মোট পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ। নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন ২৩ জন। এদের মধ্যে ১৯ জন পুরুষ ও ৪ জন নারী। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার ১.৪৬ শতাংশ।
মৃৃতদের মধ্যে সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৪ হাজার ৪৭১ জন মারা গেছেন যা মোট মৃত্যুর ৭৭ দশমিক ০৫ শতাংশ এবং ১ হাজার ৩৩২ জন নারী মৃত্যুবরণ করেছেন যা ২২ দশমিক ৯৫ শতাংশ।
তবে এ সময়ে সুস্থ হয়েছেন আরও ১ হাজার ৫৪৪ জন। সবমিলিয়ে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ৩ লাখ ১৫ হাজার ১০৭ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৯ দশমিক ০১ শতাংশ। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, নতুন করে করোনায় মৃত ১৯ জনের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব ১ জন, চল্লিশোর্ধ্ব ৩ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ৩ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ১৬ জন রয়েছেন। বিভাগ অনুযায়ী, নতুন করে করোনায় মৃত ২৩ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে একজন, রাজশাহী বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে একজন ও রংপুর বিভাগে একজন রয়েছেন।
করোনা ভাইরাসে বিশ্বের ২১৫টি দেশ ও অঞ্চলে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ২৯ লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ১১ লাখ ৫৪ হাজারের বেশি মানুষ। তবে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৩ কোটি ১৬ লাখের বেশি। করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে প্রথমে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। পরে বিভিন্ন মেয়াদে ছুটি বাড়িয়ে সর্বশেষ ৩০ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ছিলো। দেশের ইতিহাসে দীর্ঘ এ ছুটির পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খোলা হয়েছে। এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে গণপরিবহনও।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More