আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫ প্রতিষ্ঠান মালিককে জরিমানা

সরকারি আদেশ অমান্য করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখায় অভিযান

 

স্টাফ রিপোর্টার: মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় শহরে লগডাউনকে উপেক্ষা করে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে রমরমা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে আলমডাঙ্গা গার্মেন্টসপট্টি, কাপড়পট্টি, চশমাপট্টির কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা। গতকাল সকাল থেকে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হুমায়ন কবীর থানা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে গার্মেন্টস পট্টি, কাপড়পট্টিতে কয়েক দফা অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় সরকারি আদেশ অমান্য করে দোকান খুলে বেচাকেনা ও বিনাকারণে বাইরে ঘোরাফেরার দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫ জনকে জরিমানা করেছে।

জানাগেছে, মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য বেশ কিছুদিন শহরের নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানপাঠ ছাড়া সবকিছু বন্ধ ছিলো। গত ১০ মে থেকে সরকারি আদেশ মোতাবেক লগডাউন তুলে নিয়ে ব্যবসায়ীদের কিছু নিয়মনীতি মেনে ব্যবসা করতে অনুমতি দেয়া হয়। ব্যবসায়ীরা সরকারি নিয়মনীতি মেনে ব্যবসা করতে না পারায় আবারও ১৫ তারিখ থেকে শহরের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকানপাঠ ছাড়া সবকিছু বন্ধ ঘোষণা করে। বন্ধ ঘোষণা করার পর থেকে আলমডাঙ্গা গার্মেন্টসপট্টি, কাপড়পট্টির কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা সকাল ৬টা থেকে গোপনে দোকান খুলে বেচাকেনা করছে। ব্যবসায়ীরা দোকানের বাইরে একজন দাঁড় করিয়ে রেখে ভেতরে কাস্টমারকে ঢুকিয়ে দিয়ে তালা মেরে দিচ্ছে। কাস্টমারের কেনাকাটা শেষ হলে সুযোগ মতো তাদের বাইরে বের করে দিচ্ছে। শহরের  অনেকে অভিযোগ করছে পরিচিত কাস্টমারকে মোবাইল ফোনে ভোরে ডেকে নিচ্ছে।

বেলা ১১টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হুমায়ন কবীর থানা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। সরকারি আদেশ অমান্য দোকান খোলার অপরাধে আলমডাঙ্গা বাজারের মানিককে ৫শ’ টাকা, হেলালকে ১ হাজার টাকা, মন্টুকে ২শ’ টাকা ও বিনা কারণে রাস্তায় ঘোরাফেরা করার জন্য স্বাধীনকে ২শ’ টাকা, বাবুকে ৪শ’ টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More