জীবননগর আলীপুরের সেই করোনা আক্রান্ত যুবকসহ ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ

মিনাজপুরের মারা যাওয়া বালিকাসহ আরও ১১ জনের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ
জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর উপজেলার মিনাজপুর গ্রামের সামিয়া খাতুন কেয়া (১২) করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যায়। ডায়ারিয়ায় আক্রান্ত মারা যাওয়ায় পর করোনা সন্দেহে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। কেয়ার রিপোর্টসহ আরও ১১ জনের রিপোর্ট এসেছে। তাদের সকলের রিপোর্ট করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। নেগেটিভ আসা রিপোর্টের মধ্যে আলীপুর গ্রামের করোনা আক্রান্ত যুবকের পরিবারের সদস্যরাও রয়েছেন। এদিকে গতকাল শুক্রবার আলীপুরের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সেই যুবকসহ ৮ জনের নমুনা নিয়ে পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। তবে গত মাসে ঢাকার আরইডিসিআরে পাঠানো ৭টি রিপোর্ট এখনো পাওয়া যায়নি বলে জানা গেছে।
জীবননগর হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মিনাজপুর গ্রামে সাইদুর রহমানের মেয়ে সামিয়া খাতুন কেয়া গত ১৫ মে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। তার মৃত্যুকে মিনাজপুর গ্রামবাসীর মধ্যে করোনার আতঙ্ক দেখা দেয়। জীবননগর হাসপাতাল হতে তারসহ আরও ১১টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য যবিপ্রবি পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়। ওই রিপোর্ট গতকাল এসেছে। তাদের সকল রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। নেগেটিভ আসা রিপোর্টের মধ্যে আলীপুরের করোনায় আক্রান্ত হওয়া যুবকের মাতা-পিতাসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা রয়েছেন। এদিকে গতকাল আলীপুরের করোনায় ওই যুবকের আবারো করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা নেয়া হয়েছে। গতকাল আলীপুরের ওই যুবকসহ ৮ জনের নমুনা নিয়ে পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে জীবননগর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাহমুদ বিন হেদায়েত সেতু গতরাতে বিষয়টি দৈনিক মাথাভাঙ্গাকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ যাবত সংগ্রহকৃত নমুনার মধ্যে ৭টি রিপোর্ট এখনো পাওয়া যায়নি। ওই রিপোর্ট ঢাকার আরইডিসিআর এখনো দিতে পারেনি বলে জানান এ চিকিসক কর্মকর্তা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More