চুয়াডাঙ্গা থেকে কুমড়োর ট্রাকযোগে ১১ কেজি গাঁজা ও ফেন্সিডিল পাচারের সময় ঝিনাইদহে র্যা ব’র হাতে আটক ২

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া থেকে কুমড়োভর্তি ট্রাকযোগে গাঁজা ও ফেন্সিডিল পাচারের সময় ঝিনাইদহে র্যা ব’র হাতে ধরাপড়েছে দুজন। পালিয়েছে আরও দুজন। গতরাত সাড়ে ৭টার দিকে ঝিনাইদহ- মাগুরা সড়কের তল্লাশি করে গাঁজা উদ্ধার ও দুজন পাচারকারীকে পাকড়াও করা হয়। পালিয়ে যাওয়া পাচারকারী বালিয়াডাঙ্গার নজরুল ও অজ্ঞাত গ্রামের শহিদুল।
জানা গেছে, আন্দুলবাড়িয়া থেকে কুমড়ো ভর্তিট্রাকযোগে প্রচুর পরিমানের গাঁজা ঢাকায় পাচার করা হচ্ছে বলে খবর পায় র্যা ব-৬ ঝিনাইদহ সিপিসি-২ এর কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম ও স্কোয়াড কমান্ডার এইচ এম শফিকুর রহমান। এ তথ্য পেয়ে ঝিনাইদহ-মাগুরা সড়কে তল্লাশি অভিযান শুরু করে র্যা ব’র একটি চৌকস অভিযানিকদল। সোমবার সন্ধ্যারপর ট্রাকটি বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় তথা তল্লাশি স্থলে পৌছয়। কুমড়োভর্তি ট্রাক তল্লাশি করে উদ্ধার করা হয় ১১ কেজি গাঁজা। আটক করা হয় দুজনকে। এরা হলো- মো: মারুফ হোসেন (২৪)হাসমত মোল্লা (৩০)। এ দুজনই নিজেদেরকে ট্রাক চালক হেলপার বলে পরিচয় দেয়। র্যা ব বলেছে, তল্লাশির সময় এ দুজনও পালানোর চেষ্টা করে। গাঁজাপাচারকারী নজরুল ও শহিদুল পালিয়েছে। উদ্ধার করা হয় ১১ কেজি গাঁজা যার মূল্য আনুমানিক ৩,৩০,০০০ টাকা, ১১৭ বোতল ফেন্সিডিল, যার মূল্য আনুমানিক ১,১৭,০০০ টাকা, ০১টি পিকআপ, ৫৪ বস্তা মিষ্টি কুমড়া, ০৩টি মোবাইল সেট, ০৩টি সীম কার্ড, মাদক বিক্রয় লব্ধ নগদ ৩,৮১০/- টাকা উদ্ধার করা হয়।উক্ত উদ্ধারকৃত আলমমত ও গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে ঝিনাইদহ জেলার সদর থানায় হস্তান্তর করত: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণির ১৯(খ)/১৪(গ)/৪১ ধারায় মামলা করা হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More