বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ফোন

করোনা মোকাবেলায় একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার

স্টাফ রিপোর্টার: করোনাভাইরাস মহামারীতে সম্ভাব্য খাদ্য সঙ্কট মোকাবেলায় শস্য উৎপাদন বাড়াতে ঢাকা ও দিল্লি এক সঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার করেছে। বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে টেলিফোন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশের জনগণকে বাংলা নববর্ষ ও রমজানের শুভেচ্ছা জানাতে তিনি ফোন করলেও আলাপে করোনাভাইরাস সঙ্কটের বিষয়টি উঠে আসে। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস-সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, ১২ মিনিটের টেলিফোন আলাপে দুই দেশের সরকার প্রধান করোনাভাইরাস মহামারীতে সম্ভাব্য খাদ্য সঙ্কট মোকাবেলায় খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথা বলেন। ‘দুই সরকার প্রধান বলেছেন, প্রয়োজনবোধে আমরা এক সাথে কাজ করব,’ বলেন প্রেস-সচিব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা আশঙ্কা প্রকাশ করেছে এই পরিস্থিতি আরও দীর্ঘায়িত হতে পারে। ‘তাই, এই অঞ্চলের প্রতিটি দেশকে এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় এক সাথে কাজ করতে হবে।’ করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসে সার্ক দেশগুলোর ভিডিও কনফারেন্সে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় যে কর্মপরিকল্পনাগুলো গ্রহণ করা হয়েছিলো, সেগুলোকে সামনে এগিয়ে নিতেও একমত হন শেখ হাসিনা ও মোদী। কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলায় বাংলাদেশে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানোর জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদী।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More