স্বাস্থ্য বিধি ও নিয়ম কানুন না মানায় মার্কেট এবং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

চুয়াডাঙ্গায় জেলা প্রশাসকের সাথে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের বৈঠক অনুষ্ঠিত : গণবিজ্ঞপ্তি
স্টাফ রিপোর্টার: স্বাস্থ্য বিধি ও নিয়ম কানুন না মানায় মার্কেট ও অন্য ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। কিন্তু নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকানপাটগুলো খোলা থাকবে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠকের পর মার্কেট বন্ধের ঘোষণা দেন।
জানা যায়, সরকারি নির্দেশনায় গত রোববার সকাল থেকে স্বাস্থ্য বিধি ও নিয়ম কানুন মেনে চুয়াডাঙ্গায় খুলে দেয়া হয় মার্কেট ও অন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো। কিন্তু মার্কেটের ব্যবসায়ী ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো নির্দেশনা মানতে না পারায় তা ৫ দিনের মাথায় ফের বন্ধ ঘোষণা করলো জেলা প্রশাসন। আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। চুয়াডাঙ্গায় প্রতিদিনই করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের হলরুমে ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগর টগর, জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার, পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামসহ দোকান মালিক সমিতি ও মার্কেট কমিটির নেতৃবৃন্দ। জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, ঝুঁকি নিতে চাই না বলেই মার্কেট ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে। আগের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দোকানপাট খোলা রাখা যাবে।
এদিকে, জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারের স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, এতদ্বারা সংশ্লিষ্ট সকল ব্যবসায় ও জনসাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণপূর্বক জানানো যাচ্ছে যে, পবিত্র রমজান ও ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে যথাযত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে সরকার প্রদত্ত শর্তসমূহ পালনপূর্বক শপিংমল ও দোকানপাট সীমিত পরিসরে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছিলো। তবে গত ৪ দিন মার্কেট ও শপিংমল সমূহ সরেজমিনে পরিদর্শনে প্রতীয়মান হয়েছে যে, মার্কেট ও শপিংমলে আগত ক্রেতা/বিক্রেতাগণ সরকার প্রদত্ত শর্তসমূহ মেনে চলার বিষয়ে সম্পর্ণ অবহেলা করেছেন বা নির্লিপ্ত থেকেছেন। এমতাবস্থায়, জনসাধারনের স্বাস্থ্য সুরক্ষ ও মৃত্যু ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে এবং “ করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটি, চুয়াডাঙ্গা” এর ১৪ মে, ২০২০ তারিখের সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ১৫ মে, ২০২০ তারিখ হতে ৩০ মে, ২০২০ তারিখ পর্যন্ত শপিংমল দোকানপাট সমূহ বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো। এ জেলার সকল প্রকার দোকান, শোরুম, চায়ের দোকান, রেস্টুরেন্ট পূর্বের ন্যায় সার্বক্ষনিক বন্ধ থাকবে এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান (ওষুধের দোকান ব্যতীত) সন্ধ্যা ৬ ঘটিকায় আবশ্যিকভাবে বন্ধ করতে হবে। এছাড়াও, ঈদ উদ্যাপনের জন্য নিজ আবাস্থল ত্যাগ করে জাতীয় আঞ্চলিক সড়ক/মহাসড়ক ও নৌপথে বা অন্য কোনো জেলা হতে কেউ এ জেলায় প্রবেশ করতে কিংবা এ জেলা হতে অন্য কোথাও গমন করতে পারবেন না। এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় জনসাধারণের চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকবে এবং পূর্বের ন্যায় সকল ইজিবাইক, অটো এবং অন্যান্য অবৈধ যানবাহন চলাচল সম্পর্ণ নিষেধ। এছাড়াও, জরুরি সেবা ও কৃষি পণ্য, সার, কীটনাশক, খাদ্য পণ্যের চলাচল, কাঁচা বাজার ও ওষুধের দোকানের পূর্বে জারীকৃত সকল নির্দেশন বলবৎ থাকবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More