চুয়াডাঙ্গায় করোনাক্রান্ত আরও ১৯ রোগী শনাক্ত

নতুন শনাক্ত রোগীর সিংহভাগই দামুড়হুদা ও জীবননগর উপজেলার
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ১৯ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ২ হাজার ১শ’ ১৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হলো। নতুন ৪ জনসহ মোট আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮শ’ ৪৩ জন। গতকাল মঙ্গলবার পাওয়া চুয়াডাঙ্গার ৬২ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ১৯ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত ২০৪ জন নিজবাড়িতে হোম আইসোলেশন ও হাসপাতালের করোনা ইউনিটের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গার ৬২ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল স্বাস্থ্যবিভাগের কাছে পৌঁছায়। এতে ১৯ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ২ জন সদর উপজেলার, ১ জন আলমডাঙ্গার, ৬ জন দামুড়হুদার এবং ১০ জন জীবননগর উপজেলার বাসিন্দা। বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২০৪ জন। তাদের মধ্যে ১৮৩ জন বাড়িতে তথা হোম আইসোলেশন ও ১৮ জন প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়া তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলার বাইরে রেফার্ড করা হয়েছে। গতকাল চুয়াডাঙ্গার আরও ৬৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় এ পর্যন্ত ১ হাজার ৬২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ৯৯১ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৯ জনের। বর্তমানে সক্রিয় ৪২ রোগীর মধ্যে ৩৫ জন হোম আইসোলেশন, ৬ জন হাসাপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে এবং একজন রেফার্ড হয়ে জেলার বাইরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
আলমডাঙ্গা উপজেলায় এ পর্যন্ত ৩৭৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ৩৪০ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৯ জনের। বর্তমানে সক্রিয় ১৪ রোগীর মধ্যে ১২ জন হোম আইসোলেশন, ১ জন হাসাপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে এবং ১ জন রেফার্ড হয়ে জেলার বাইরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
দামুড়হুদা উপজেলায় এ পর্যন্ত ৪৫০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ৩১৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের। বর্তমানে সক্রিয় ১১৯ রোগীর মধ্যে ১০৮ জন হোম আইসোলেশন, ১০ জন হাসাপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে এবং ১ জন রেফার্ড হয়ে জেলার বাইরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
জীবননগর উপজেলায় এ পর্যন্ত ২৩১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ১৯৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। বর্তমানে সক্রিয় ২৯ রোগীর মধ্যে ২৮ জন হোম আইসোলেশন, ১ জন হাসাপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More