টাপেন্টাসহ আটক ৫ : চোরাই মোবাইল উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গার রেলবাজারের সুরুজ ফার্মেসিতে থানা পুলিশের অভিযান
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় নেশাজাতীয় ট্যাবলেট টাপেন্টা ও চোরাই মোবাইলসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে সদর থানা পুলিশ জেলা শহরের রেলবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। এসময় ৭১ পিস টাপেন্টা ও ৪২টি মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আটককৃত ৫ জনের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।
পুলিশ জানিয়েছে, নেশাজাতীয় ওষুধ টাপেন্টা দোকানে রেখে প্রেসক্রিপশন ছাড়াই যুবকদের মাঝে বিক্রি করা হচ্ছে এমন খবরে শনিবার রাতে চুয়াডাঙ্গার রেলবাজার এলাকার সুরুজ ফার্মেসিতে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় দোকানের সামনে থেকে আটক করা হয় চারজনকে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় নিষিদ্ধ ঘোষিত টাপেন্টা ট্যাবলেট। নেশাজাতীয় এ ট্যাবলেট বিক্রির অপরাধে আটক করা হয় দোকানদার মনির হোসেনকে। পরে দোকান তল্লাশি করে টাপেন্টাসহ উদ্ধার করা হয় ৪২টি চোরাই মোবাইলফোন।
আটককৃতরা হলেন রেলবাজারের সুরুজ ফার্মেসির মালিক বড় মসজিদপাড়ার মৃত আলতাব হোসেনের ছেলে মনির হোসেন (৫০), সাতগাড়ির রবিউল হকের ছেলে আকাশ (২৫), জাফরপুরের ছানোয়ার হোসেনের ছেলে স্বপন (১৮), মোমিনপুর গ্রামের আজিবর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫) ও একই এলাকার লালুর ছেলে মনিরুল ইসলাম (২০)। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলাসহ চোরাই মোবাইল কেনাবেচার সাথে জড়িত থাকায় মনির হোসেনের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান বলেন, বাজারে প্রচলিত বহুল আলোচিত-সমালোচিত ড্রাগ ট্যাপেন্টাডল বা টাপেন্টা জাতীয় ব্যথানাশক ওষুধ দেদারছে প্রেসক্রিপশন ছাড়া বিক্রি করা হতো বা এখনো হচ্ছে। গত ৯ জুন এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ওষুধটি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নিষিদ্ধ করে মাদকের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ড্রাগটি তরুণ বা যুবকদের কেউ ইয়াবার মত কেউ বা কফ সিরাপের সাথে মিশিয়ে ফেনসিডিলের মত নেশা করে আসছে। এটা কোনভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছিলো না। ওষুধটি এখন নিষিদ্ধ ড্রাগের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় চুয়াডাঙ্গা থানা পুলিশ এ অভিযান পরিচালনা করে সরাসরি এই ড্রাগটির ক্রয়-বিক্রয়ের সাথে জড়িত পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। চুয়াডাঙ্গা জেলার সকল ওষুধ ব্যবসায়ীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে পুনরায় কঠোরভাবে সতর্ক করে ওসি আরও বলেন, ভবিষ্যতে অভিযানের এ ধারা অব্যাহত থাকবে। মাদক নির্মূলে আইনের সর্বোচ্চটুকু প্রয়োগ করা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More