মাঠে মাঠে টিউবওয়েল এবং বজ্রসেল্টার নির্মাণ করা হবে

দামুড়হুদায় ৩ দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধনকালে উপজেলা চেয়ারম্যান বাবু
দামুড়হুদা ব্যুরো: দামুড়হুদায় তিন দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুর ১২টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু ফিতে কেটে এ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু। তিনি বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণের যে স্বপ্ন দেখেছিলেন তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা বাস্তবায়ন করে চলেছেন। তিনি বাংলাদেশকে একটি সুখি-সমৃদ্ধ ও উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তারই নিরলস প্রচেষ্টায় দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন। চাল এবং সবজি উৎপাদনে বিশ্বের মধ্যে ৩য় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও দেশে কোনো খাদ্য ঘাটতি নেই। দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। এলাকার চাষিরা নতুন নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃষিখাততে এগিয়ে নিচ্ছেন। উপজেলার প্রতিটি মাঠে মাঠে কৃষকদের সুপেয় পানির জন্য টিউবওয়েল এবং বজ্রপাতের হাত থেকে রক্ষা পেতে মাঠে মাঠে টিনসেড (বজ্রসেল্টার) নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি। এখানে দেশের সবচেয়ে বড় মাল্টার বাগান, বেশকিছু পেঁয়ারা বাগান গড়ে উঠেছে। কৃষিতে সারা বাংলাদেশের মধ্যে দামুড়হুদা একটি মডেল উপজেলা। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার কথা তুলে ধরে বলেন, আমাদের বসতবাড়িসহ এক ইঞ্চি জমিও যেন খালি পড়ে না থাকে। বৃহত্তর কৃষ্টিয়া ও যশোর অঞ্চলের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের আয়োজনে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা খাতুন, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. মনিরুজ্জামান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা অভিজিত কুমার বিশ্বাস। উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম উদ্দীন বগা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজু আহম্মেদ রিংকু, সিআইজর সভাপতি শামসুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাকিল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা কায়জার আলী পল্টু।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More