আবার শৈত্যপ্রবাহ শুরু : ঘন কুয়াশার পূর্বাভাস

চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন স্থানে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত
স্টাফ রিপোর্টার: প্রায় ১০ দিনের বিরতির পর গুটি গুটি পায়ে আবার শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। আজ সোমবারের মধ্যে রংপুর বিভাগের বেশির ভাগ এলাকা এবং রাজশাহী ও খুলনার প্রায় অর্ধেক এলাকায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ ছড়িয়ে পড়তে পারে। আর সারাদেশের রাতের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে এমনটা বলা হয়েছে। এদিকে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন স্থানে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। গতকাল রোববারসহ দুইদিন ধরে সারাদেশে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। শীতের হিমেল বাতাস বইছে ঘণ্টায় ৫ থেকে ১২ কিলোমিটার গতিতে। সেই সঙ্গে কুয়াশাও বাড়তে শুরু করেছে, বিশেষ করে নদীতীরবর্তী এলাকাগুলোতে রাত থেকে দুপুর পর্যন্ত ঘন কুয়াশা ছিলো। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, ওই ঘন কুয়াশা আগামী দিনগুলোতে আরও বাড়তে পারে।
এ ব্যাপারে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, বছরের এই সময়ে দেশে সবচেয়ে বেশি শীত থাকে, কিন্তু এ বছর বঙ্গোপসাগরসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মেঘ আসার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় শীতের বাতাস আসতে বাধা পাচ্ছিলো। এখন আকাশ মেঘমুক্ত হওয়ায় শীতের বাতাস স্বাভাবিকভাবে আসতে পারছে। তাই শীত বেড়েছে, ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত এই শীত ও শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।
এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, শীতের এই সময়ে স্বাভাবিকের চেয়ে তাপমাত্রা এক থেকে তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। এ সময়ে সাধারণত দেশের প্রায় অর্ধেক এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ থাকে। কিন্তু ৫ জানুয়ারির পর থেকে শৈত্যপ্রবাহ বিদায় নিয়েছিল। রোববার পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা ছিলো ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কুড়িগ্রামের রাজারহাটের তাপমাত্রা ছিলো ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের অন্য এলাকাগুলোর তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে ছিলো, অর্থাৎ শুধু ওই দুই জেলায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে।
দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, দামুড়হুদার প্রান্তিক জনগোষ্ঠিদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। রোববার বিকেলে দামুড়হুদা মডেল সরকারি প্রাইমারি স্কুল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই মহতি উদ্যোগের সূচনা হয়। দামুড়হুদা উপজেলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠিদের মাঝে চাদর ও শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে সোয়েটার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার। দামুড়হুদা উপজেলা অফিসার্স ক্লাবের আয়োজনে এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুদীপ্ত কুমার সিংহ, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, দামুড়হুদা মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ, উপজেলা প্রকৌশলী খালিদ হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আশরাফ আলী, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাকি সালাম, উপজেলা নির্বাচন অফিসার ইসহাক, উপজেলা সমবায় অফিসার হারুন অর রশিদ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হোসনে জাহান ববি, উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার রাফিজুল ইসলাম, উপজেলা পাট কর্মকর্তা রিয়াজুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নাসির উদ্দীন, সেলিম রেজা প্রমুখ।
কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল সকাল ১০ টার দিকে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল করিম বিশ্বাস প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সচিব মহি উদ্দিন, ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, বিল্লাল হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, মাহবুর রহমান, আব্দুস সালাম, আব্দুর রাজ্জাক, নুর মোহাম্মদ ভগু, সাজিবর রহমান, আনেহার খাতুন, সুমিয়া খাতুন, উদ্যোক্তা হারুন প্রমুখ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More