আলমডাঙ্গায় দা’য়ের কোপে স্ত্রী হাসপাতালে : স্বামী আটক

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার বকশিপুরে স্বামীর দায়ের কোপে স্ত্রীর পিঠে ২২টি সেলাই দিয়েছে চিকিৎসক। দা দিয়ে কুপিয়ে নিজেই প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় রক্তাক্ত স্ত্রী মুরশিদাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন আরশেদ আলী। হাসপাতালে স্ত্রীকে ভর্তি করে বাইরে এলে আরশেদ আলীকে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ হেফাজতে নেয়। ৩ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে আলমডাঙ্গার বকশিপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, বকশিপুর গ্রামের খালপাড়ার আরশেদ আলীর বাড়িতে তার ছেলের শ্বশুর বেড়াতে আসেন। বাজার করে নিয়ে আসার পর রান্না করা নিয়ে আরশেদ ও মুরশিদার মধ্যে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। এসময় মুরশিদার পুরানো পরকীয়ার প্রসঙ্গও তাদের কথা কাটাকাটিতে উঠে আসে। এতে মুরশিদা হৈ চৈ শুরু করে। এমন পরিস্থিতিতে ছেলের শ্বশুর বিব্রত হয়ে না খেয়েই বাড়ি ছেড়ে চলে যান। এ ঘটনায় আরশেদ আলী স্ত্রীর ওপর আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। তিনি ঘর থেকে দা নিয়ে এসে প্রথমে মাথায় ও পরে মুর্শিদার পিঠে সজোরে কোপ মারেন। এক কোপেই মুর্শিদা রক্তাক্ত জখম হন। গুরুতর আহতাবস্থায় মুর্শিদাকে স্বামী আরশেদ আলী প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় উদ্ধার করে হারদী হাসপাতালে নিয়ে যান। পুলিশ আরশেদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More