করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকল্পে পৌর এলাকার সকল মসজিদে ফ্লোর ক্লিনার বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার উদ্যোগে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকল্পে পৌর এলাকার সকল মসজিদে ফ্লোর ক্লিনার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে পৌরসভা মিলনায়তে পৌর এলাকার ১০৭ টি মসজিদে এ ফ্লোর ক্লিনার বিতরণ করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু মসজিদগুলোর দায়িত্বপ্রাপ্ত কমিটির সদস্য ও ইমাম মোয়াজ্জিনদের হাতে এ ফ্লোর ক্লিনার তুলে দেন।

এ সময় জিপু চৌধুরী বলেন, আপনারা জানেন পৌরসভার দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই আমিসহ কাউন্সিলররা চেষ্টা করছি কিভাবে আপনাদের সেবার মান বৃদ্ধি করা যায়। তার সবটুকুই আমরা করছি। আমরা সব উন্নয়ন কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার চেষ্টা করছি। উন্নয়ন কাজের পাশাপাশি এই করোনা মহামারির শুরু থেকেই আমরা নিয়ম করে অভাগ্রস্তদের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দিয়েছি। এই সঙ্কটকালীন সময় আমাদের সকলকে সচেতন থাকতে হবে। মসজিদে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে মুসল্লিরা। এবার সরকারি আদেশ অনুযায়ী ঈদুল আজহার নামাজও মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। কিছুদিন আগে আমরা পৌর এলাকার মসজিদগুলোতে হ্যান্ডওয়াশ প্রদান করেছি। আপনারা অবশ্যই মসজিদে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করবেন আর মাস্ক ব্যবহার করবেন। আর এই ক্লিনার দিয়ে প্রতিবার নামাজের পর মসজিদের ফ্লোর পরিষ্কার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, আপনারা চেষ্টা করবেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা থেকে নির্ধারিত স্থানে পশু কুরবানি করতে। আর কেউ যদি নিজ বাড়িতে পশু কুরবানি করেন তাহলে অবশ্যই বর্জ্য মাটিতে পুতে ফেলবেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সচিব কাজী শরিফুল ইসলাম, প্যানেল মেয়র মুন্সি রেজাউল করিম খোকন, কাউন্সিলর রাশেদুল ইসলাম, শাহিনা আক্তার, শেফালী খাতুন, পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান কাওসার, টিকাদান সুপারভাইজার আলী হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন জ্যাকি, সাবেক সদস্য গাজী ইমদাদুল হক সজল প্রমুখ।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More