কুষ্টিয়া চিনিকলের সাবেক এমডি ও দুই সিবিএ নেতা সাময়িক বরখাস্ত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: দুর্নীতির দায়ে কুষ্টিয়া চিনিকলের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি), সিবিএ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে একযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সদর দফতর গঠিত তদন্ত কমিটির দাখিলকৃত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গত ১৮ নভেম্বর তাদের বরখাস্ত করা হয়। বরখাস্তকৃতরা হলেন সাবেক এমডি গোলাম সারওয়ার মোর্শেদ, শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান।

জানা যায়, চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রোভিডেন্ট ফান্ড, গ্র্যাচুইটি ও মালামাল সরবরাহকারীদের বিল পরিশোধে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে চরম অসন্তোষ দানা বেঁধে ওঠে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ খাদ্য ও চিনি শিল্প করপোরেশন সদর দফতরের অফিস আদেশে দুই সদস্য বিশিষ্ট গঠিত তদন্ত কমিটি সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, অনিয়মতান্ত্রিকভাবে সঞ্চয়পত্র ভাঙানোর রেজুলেশনে স্বাক্ষর ও অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রোভিডেন্ট ফান্ডের চেক প্রদানের সময় পরস্পর যোগসাজসে কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক ঘুষ গ্রহণ ও আত্মসাৎ, অবসর গ্রহণের ২-১ মাস পূর্বে কর্মচারীদের ৯০ থেকে ৯৫ ভাগ ঋণ প্রদানসহ অনিয়মের নানা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় কর্মচারী বিধিমালা ১৯৮৯ এর ৪৪ (১) ধারামতে চিনিকলের সদ্য বদলিকৃত এমডি গোলাম সারওয়ার মোর্শেদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। বাংলাদেশ খাদ্য ও চিনি শিল্প করপোরেশনের চেয়ারম্যান (গ্রেড-১) সনৎ কুমার স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়। এছাড়া একই অভিযোগে চিনিকলের শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমানকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. রকিবুর রহমান খান স্বাক্ষরিত পত্রে ১৮ নভেম্বর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। দুর্নীতির এ ঘটনাটি দুর্নীতি দমন কমিশনও আলাদা তদন্ত করছে।

উল্লেখ্য, ক্রমাগত লোকসান, দুর্নীতিসহ নানা অনিয়মে জেলার গৌরবময় এ প্রতিষ্ঠানটি রুগ্ন শিল্পে পরিণত হয়েছে। মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) মো. রকিবুর রহমান খান জানান, তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় অভিযোগ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More