কৃষকের উন্নয়ন মানেই আমাদের দেশের উন্নয়ন

আলমডাঙ্গায় কৃষি মাঠদিবসে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষক পর্যায়ে উন্নতমানের ধান, গম ও পাট বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্পের আওতায় রোপা আমন ধানের মাঠ দিবস পালন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদী এমএস জোহা কৃষি কলেজ এলাকার প্রত্যন্ত গ্রামে এ মাঠ দিবস পালন করা হয়। মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিভাস কুমার সাহার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান। আলমডাঙ্গা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সোহেল রানার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূর ও হারদী ইউপি চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান ওল্টু। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান বলেন, ‘কৃষিই সমৃদ্ধি। কৃষকের উন্নয়ন মানেই আমাদের দেশের উন্নয়ন হয়। আমিও কৃষকের সন্তান। আজ আমি আপনাদের সাথে শুধু সাক্ষাৎ করতে এসেছি, আপনাদের খোঁজখবর নিতে এসেছি। কারণ আপনারাই এদেশের মূল চালিকাশক্তি। আপনারা জানেন যে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে সারা পৃথিবীতেই কৃষি যন্ত্রপাতিসহ সমস্ত ধরনের জিনিসপত্রের দাম অস্থিতিশীল হয়েছে। তাই আমাদেরকে প্রান্তিক পর্যায়ে উন্নতি করতে হবে। আর আপনাদের মত কৃষকরাই সেটি করতে পারবে। আপনাদের কথা বিবেচনা করে সরকার সার ও বীজে কোটি কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বলেছেন এক ইঞ্চি আবাদি জমিও যেনো পতিত না থাকে। এমনকি বাড়ির আঙিনা, স্কুল, কলেজ কম্পাউন্ডসহ যেখানেই ফাঁকা জায়গা আছে, সেই জায়গায় শাকসবজিসহ বিভিন্ন ধরনের কৃষি ফসলাদি উৎপাদন করতে হবে। মাঠ দিবস অনুষ্ঠানটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলার কৃষি অফিসার হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা শাহীন রাব্বী।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More