গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ল্যাপটপ চুরি : থানায় অভিযোগ

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে একটি ল্যাপটপ চুরি হয়েছে। শুক্রবার কোনো এক সময় হাসপাতাল ভবনের দোতলায় অফিসের একটি কক্ষ থেকে ল্যাপটপট চুরি হয়। এ ঘটনায় অভিযোগের তীর হাসপাতালের এক দায়িত্বশীল ব্যক্তির দিকে। তবে ঘটনাটি তদন্ত করে দায়ীদের আইনের আওতায় আনার জন্য থানায় অভিযোগ করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা।
জানাগেছে, গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টি.বি সেকশনে জিন এক্সপার্ট মেশিনের সাথে এই ল্যাপটপটি ব্যবহার করা হতো। অত্যাধুনিক এই ল্যাপটটি বিশেষ ল্যাপটপ হিসেবে পরিচিত। টেকনিশিয়ান মাখন এইচপি কোম্পানীর ল্যাপটপটি ব্যবহার করতেন। শুক্রবার অফিস বন্ধের সময় ওই কক্ষটিও বন্ধ ছিলো। এর মধ্যে কোনো এক ব্যক্তি ল্যাপটপ ও মাউস ও কি-বোর্ড নিয়ে পালিয়ে যায়। শনিবার হাসপাতালে গিয়ে বিষয়টি টের পান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। এ ঘটনায় হাসপাতাল ও হাসপাতালের আশেপাশের এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়।
এদিকে হাসপাতালের গুরুত্বপূর্ণ ল্যাপটপ উদ্ধারের জন্য আরএমও বিডি দাসকে চাপ দেয় কর্তৃপক্ষ। এর এক পর্যায়ে তিনি ল্যাপটপটি ফেরত আনতে সক্ষম হন। তবে কার কাছ থেকে কিভাবে ফেরত আনা হলো তা নিয়ে নানা সমালোচনা চলছে।
জানতে চাইলে বিডি দাস জানান, ল্যাপটপটি উদ্ধার করা হয়েছে তবে কোথায় থেকে উদ্ধার হয়েছে তা জানাতে চাননি তিনি।
গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচএফ পিও আহাম্মেদ রাইহান শরিফ জানান, শুক্রবার সন্ধায় টিবি কক্ষ থেকে চুরি হওয়া ল্যাপটপটি উদ্ধার হয়েছে। তবে চোর কে তা শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার জন্য থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে এ সুরাহা করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান বলেন, হাসপতাল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ তদন্ত করে চোর শনাক্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More