চুয়াডাঙ্গার গড়াইটুপি বিট পুলিশিং সমাবেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক

আইনী সহায়তা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছুতে বিট পুলিশ অগ্রণী ভূমিকা রাখছে

গড়াইটুপি প্রতিনিধি: মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার এ স্লোগানকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গার গড়াইটুপিতে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দর্শনা থানার অন্তর্গত ৯নং বিট পুলিশিং এ সমাবেশের আয়োজন করে। গড়াইটুপি ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান রাজুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক (প্রশাসন)।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আজকের এই পুলিশিং সমাবেশের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে পুলিশ আর সাধারণ মানুষের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরি করা। পুলিশকে জনগণের কাছে নিয়ে যাওয়া। পুলিশী সেবাকে ইউনিয়ন পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে এবং এই সেবা বিকেন্দ্রীকরণই হল বিট পুলিশের যাত্রা।আমরা জনগণের কাছে সর্বাত্মক সেবা দেয়ার চেষ্টা করছি। বর্তমানে বড় সমস্যা হলো সোশ্যাল মিডিয়া বা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে গুজব ছড়ানো। সুনামগঞ্জে যেরুপ গুজব ছড়ানো হয়েছে এই মোবাইলের মাধ্যমে। অনেকে মেয়েদেরকে মোবাইলে বিরক্ত করে থাকে। আপনার সন্তান মোবাইলে কি করে কোন কাজে ব্যয় করে খেয়াল রাখতে হবে। বর্তমানে বিকাশ নগদে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করা হচ্ছে এ বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। আপনারা জানেন ১৪ সালের নির্বাচনের সময় দেশকে অস্থিতিশীল করতে এক শ্রেণীর লোক দেশব্যাপী জ্বালাও পোড়াও শুরু করেছিল।সেটা প্রতিরোধে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী শক্ত হাতে দমন করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে।

অপপ্রচার চালিয়ে একটি কুচক্রী মহল দেশের চলমান উন্নয়ন নস্যাৎ করতে চাই। তাদের সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন দর্শনা থানার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান কাজল। আন্দুলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফাতরুজ্জামান মাস্টার, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আওলাদ বিশ্বাস, আ.লীগ নেতা এএসএম খালেকুজ্জামান মাস্টার, শাহ আলম বাচ্চু, খাড়াগোদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাহারুল ইসলাম, ৯নং বিট পুলিশের এসআই মাহমুদুল হাসান মিন্টু, তিতুদহ ক্যাম্প ইনচার্জ শেখ রকিবুল ইসলাম, এএসআই ইদ্রিস আলী। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন গড়াইটুপি প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক সন্ন্যাসী কুমার পাল ও ইউপি সচিব হাফিজুর রহমান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More