জামালপুরে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে ধর্ষণ!

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে একবধূকে (২২) সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের শিকার ওই বধূ ঢাকায় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে চুকাইবাড়ী ইউনিয়নের যমুনা নদীর তীরবর্তী চকরিয়া গ্রামে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ঘটনার দুই দিন আগে দেওয়ানগঞ্জের নিজ বাড়িতে বেড়াতে আসেন ওই গৃহবধূ। গত শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে নিজের ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি। এ সময় কয়েকজন দুর্বৃত্ত সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে পড়ে। তাদের ভেতর একজন ধর্ষণ করে ওই গৃহবধূকে। তাঁর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। চুকাইবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রাশেদুজ্জামান সেলিম খান বলেন, মেয়েটির বিয়ে হয়েছে ঢাকায়। সেখানেই থাকেন তিনি। সেদিন নিজের বাড়িতে এসে ধর্ষণের শিকার হলেন। ধর্ষিতার চিৎকার শুনে পার্শ্ববর্তী তোফাজ্জল নামের এক বৃদ্ধ এগিয়ে এলে বখাটেরা তাঁকেও মারধর করে। বিষয়টি জানার পর আমি পুলিশ পাঠিয়েছি সেখানে। থানায় একটি মামলা হয়েছে। হাসমত (২৮) নামের এক সহযোগীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানিয়েছেন থানার ওসি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More