জীবননগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন

স্টাফ রিপোর্টার: জীবননগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে জীবননগর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক ময়েন উদ্দীন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বলা হয়েছে ঘোষিত ৩১ সদস্যের কমিটি আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে কমিটি গঠনের দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে গত ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ সালে জীবননগর উপজেলা যুবদলের বিগত কমিটি বিলুপ্ত করে আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয় চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদল। সেই ধারাবাহিকতায় মঈন উদ্দীন ময়েনকে আহ্বায়ক ও যুগ্ম আহ্বায়কদ্বয় উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের বিএনপি ও যুবদল নেতা কর্মীদের সাথে আলাপ আলোনার মাধ্যমে সর্বসম্মতিক্রমে ৮টি ইউনিয়নের আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়া হলো।

কেডিকে ইউনিয়নে আহ্বায়ক করা হয়েছে শামীম হোসেনকে এবং সদস্য সচিব করা হয়েছে জাহাঙ্গীর মোল্লাকে। এছাড়া যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে ইয়ামিন হোসেন, হারুন ইসলাম, আলীহিম সর্দ্দার, শাহিন হোসেন, উজ্জল হোসেন, শরিফুল ইসলাম ও হাসান মিয়া। এছাড়াও কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে আকরামুল হোসেন, মিজানুর রহমান, মামুন ইসলাম, মমিনুর ইসলাম, সোহেল মিয়া, ইমরান হোসেন, মিনাজ মিয়া, তোতা জিহাদী, ফারুক হোসেন, চাঁন্দু মিয়া, আমানতুল্লাহ, ইমরান হোসেন, রতন মিয়া, মিলন হোসেন, ফরাদ হোসেন, সুজন মিয়া, সাইফুল ইসলাম, মধু মিয়া, মিঠুন হোসেন, হামিদ মিয়া, জুল হোসেন ধন্দু ও মতিয়ার হোসেন। আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নে আহ্বায়ক করা মন্টু মিয়াকে এবং সদস্য সচিব করা হয়েছে জাভেদ হোসেন লালকে। এছাড়া যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে ফিরোজ হোসেন, সাইদুর রহমান, সলেমান শেখ, আক্তার হোসেন, জিয়া হোসেন, আরিফ হোসেন ও সামাদ মিয়াকে। সদস্যরা হলেন সেলিম বিশ্বাস, রুবেল হোসেন, সোহাগ হোসেন, ইয়া খান, রাজন মিয়া, সুমন হোসেন, পান্নু মিয়া, আসির উদ্দীন, শাহীন হোসেন, আলাউদ্দীন, সানোয়ার রহমান, বাশার উদ্দীন, ইসলাম হোসেন, আরিফ উদ্দীন, আরিফুল ইসলাম, নূর উদ্দীন, জাহিদ হাসান, মামুন মিয়া, পিন্টু মিয়া, তোতো হোসেন, ইব্রাহিম মিয়া ও সেলিম উদ্দীন। মনোহারপুর ইউনিয়নে আহ্বায়ক করা হয়েছে শরিফুল ইসলামকে এবং সদস্য সচিব করা হয়েছে জাফিরুল ইসলামকে। যুগ্মআহ্বায়করা হলেন ইকবাল হোসেন, সাফায়েত হোসেন সুজন, মো. ইদবারি, আলম হোসেন, খমিন মিয়া, জসিম উদ্দীন ও সাইমুন হাসান রুবেল। এছাড়া সদস্যরা হলেন শিমুল মিয়া, সোহেল হোসেন, মনির মিয়া, রাজন হোসেন, আহাদ আলী, সাগর মিয়া, হান্নান আলী, মামুন মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, কামরুল ইসলাম, লিখন মিয়া, রসুল মিয়া, মো. হারান, হুসাইন সুমন, সাগর হোসেন, আব্দুল কুদ্দুস খান, চঞ্চল মিয়া, জসিম হোসেন, মাহাবুল ইসলাম, জাহিদুল মিয়া, নিজাম উদ্দীন ও মো. সজিব। হাসাদাহ ইউনিয়নে মামনুর রশিদকে আহ্বায়ক ও শামিম শেখকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। এছাড়া যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে শাহিন রেজা, মেহেদী হাসান, রাজন মিয়া, শান্ত মিয়া, নাসরুল হোসেন, সুমন মিয়া ও তরিকুল  ইসলাম। সদস্যরা হলেন হাসানুজ্জামান, মফিজুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, আনারুল ইসলাম, জুয়েল রানা, কবির হোসেন, সেলিম রেজা, শাহিন আলম, ইকরামুল হক, রানা মিয়া, আরশাফ হোসেন, মাহাবুল হোসেন, সাব্বির রহমান, মতিয়ার রহমান, শাওন হোসেন, বাদল মিয়া, সুমন হোসেন, নাসির উদ্দীন, মনিরুল ইসলাম, জাহিদ হাসান, শান্টু মিয়া ও আক্তার রহমান। বাঁকা ইউনিয়নে রাজা আহাম্মেদকে আহ্বায়ক ও ইনামুল ইসলামকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে নূর মোহাম্মদ, শামীম হোসেন, বাবু মিয়া, রাজা মিয়া, মোফাজ্জেল হোসেন, বাপ্পী মিয়া, ও মোস্তফা আলী। এছাড়া সদস্যরা হলেন ইব্রাহীম হোসেন, শহিদ মিয়া, মিনাজুল ইসলাম, হাসান আলী, নজরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, মো. তুরফা, শরিফুল ইসলাম, ঝন্টু মিয়া, মনিরুল ইসলাম মনি, খাইরুল ইসলাম রনি, আব্দুর রাজ্জাক, সুজন মিয়া, মো. হাবিবুর, মাইন ইসলাম, মিকাইল হোসেন, বশির উদ্দীন, হাওস আলী, তুহিন আলী, হাকিমুল ইসলাম, মোস্তফা মিয়া ও রুবেল হোসেন। সীমান্ত ইউনিয়নে আব্দুস সালামকে আহ্বায়ক ও ইমরান হোসেন বাবুকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। এছাড়া যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে হাসানুজ্জামান, হারুন-অর-রশিদ, দ্বীপ মিয়া, রাসেল মিয়া, মোস্তফা কামাল উজ্জল, মশিয়ার রহমান ও লাভলু মিয়া। সদস্যরা হলেন আলী হোসেন, আরেফীন মিয়া, আব্দুল মমি হোসেন, আহাদ আলী, সোনা মিয়া সনু, হাবিবুর রহমান শান্তি, আলম হোসেন, আসমাউল হোসেন, আক্তার মিয়া, খাইরুল ইসলাম, ডা. নাজিম হোসেন, খাইরুল ইসলাম, তেতুল মিয়া, রুবেল হোসেন, আমিনুর ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, মিন্টু মিয়া, মাহাবুব ইসলাম, আজিজ হোসেন, ইকরামুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম ও শিলন মিয়া। রায়পুর ইউনিয়নে সাদ্দাম হোসেকে আহ্বায়ক এবং সদস্য সচিব করা হয়েছে সাইফুল ইসলামকে। যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে আবুল কাশেম, রায়হান উদ্দীন মিয়া, শিহাব উদ্দীন, কবির হোসেন, শরিফ উদ্দীন, শাহিন পারভেজ কলম ও শামিম রেজাকে। সদস্যরা হলেন মহাসিন হোসেন, শিমুল উদ্দীন, কুটি মিয়া, জয়নাল আবেদীন, নুরুজ্জামান, আরিফুজ্জামান, নাজমুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন দিলু, মনির হোসেন, শরিফুল ইসলাম, সলেমান হোসেন, হাকিম মিয়া, রেজাউল হোসেন, জালাল উদ্দীন, এরশাদ মিয়া, মেহের আলী, শফিকুল ইসলাম, গোলাম মোস্তফা, শাহ আলম, সোহাগ মিয়া, জনি উদ্দীন ও রুবেল হোসেন। উথলী ইউনিয়নে নাজমুল হোসাইনকে আহ্বায়ক ও আরমান আলীকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। যুগ্মআহ্বায়ক করা হয়েছে আরোজ আলী, তৌহিদুর রহমান তৌহিদ, ফারুক হোসেন তুষার, জনি মিয়া, মিজানুর রহমান, মো. সবুজ ও আব্দুল কাদের মুক্তকে। এছাড়া সদস্যরা হলেন রুবেল আহাম্মেদ সাইস, ইনামুল হোসেন, মেহেদী হাসান লিপ্টন, আখেরী জামান আওয়াল, আরিফ হোসেন, রানা মিয়া, শাহাদত হোসেন বাবু, নাজমুল হক হৃদয়, আরিফুল ইসলাম, শের আলী, সাঈদ হোসেন, মানিক মিয়া, বাদল আলী, শামীম হোসেন, মিলন মিয়া, হাকিম উদ্দীন, আলম হোসেন, শাহাজান আলী, লাল মিয়া, আশরাফুল ইসলাম, নিসান হোসেন ও আরিফিন ইসলাম।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More