ঝিনাইদহে প্রতারকের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের সালিস বৈঠক

ঝিনাইদ প্রতিনিধি: অবশেষে ঝিনাইদহে সেই প্রতারক রুবেলের বিরুদ্ধে গোপিনাথপুরে একটি গ্রাম্য সালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে ওই গ্রামে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জমি বিক্রির নামে আমেরিকা প্রবাসী এক ব্যবসায়ীর ৭৫ লাখ টাকা আত্মসাতের পাঁয়তারা করছে ইয়াদুর রহমান রুবেল নামের ওই প্রতারক।

ভুক্তভোগী আমেরিকা প্রবাসী ব্যবসায়ী বদিরুজ্জামান অভিযোগ করে বলেন, সদর উপজেলার ল²ীকোল গ্রামের মৃত এনায়েতুর রহমানের ছেলে ইয়াদুর রহমান ওরফে রুবেলের কাছ থেকে ১২১ শতক জমি ক্রয়ের জন্য ২০১১ সালের ১৫ নভেম্বর ১০ লাখ, ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি ৫ লাখ, ২০১৭ সালের ২৮ ফেব্রæয়ারি ৩৫ লাখ টাকা বায়নামা করা হয়।

পরবর্তীতে ওই বছরের ৫ অক্টোবর ১৫ লাখ ও ২০১৮ সালের ৪ মার্চ আরও ১০ লাখ টাকা ইয়াদুরকে দেন ওই ব্যবসায়ী। জমি কেনা বাবদ ইয়াদুরকে ওই ব্যবসায়ী সর্বমোট ৭৫ লাখ টাকা দেন। কিন্তু দিনের পর দিন পেরিয়ে গেলেও জমি না দিয়ে ওই টাকা আত্মসাতের পাঁয়তারা শুরু করেছেন প্রতারক ইয়াদুর রহমান। ভুক্তভোগী আমেরিকা প্রবাসী ব্যবসায়ী বদিরুজ্জামান জমি রেজিস্ট্রির জন্য বিভিন্ন সময় প্রতারক রুবেলের কাছে ধরনা দেন। তিনি বিভিন্ন অজুহাতে দিনের পর দিন  ঘোরাতে থাকেন। অবশেষে খারাপ আচরণসহ তাকে নানারকম ভয়ভীতি দেখানো হয়। এক পর্যায়ে তিনি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

ওই এলাকার ভুক্তভোগী ওয়াদুদ শেখ ও শমসের আলী অভিযোগ করে বলেন, ২০০৯ সালে জাকির হোসেন টিটো নামের এক ব্যক্তি তার ক্রয়কৃত গোপিনাথপুর মৌজার এসএ ১২৪/২ নম্বর খতিয়ানভুক্ত ৪২৯ নম্বর আরএস, ৮৬৫ নম্বর দাগের ২২ শতক জমিতে ওয়াদুদ শেখ ও সমসের আলীকে ঘর করে বসবাসের জায়গা করে দেন। তারা সেখান থেকে ওই জমি দেখাশোনা করে আসছিলো। বেশ কিছুদিন যাবত জমি নিজেদের দাবি করে প্রতারক রুবেল তাদের সেখান থেকে উচ্ছেদ করার হুমকি দিয়ে আসছিলেন। গত ৬ মার্চ রাতে রুবেল, রয়েল, ফজলুর রহমান ও তার সহযোগিরা ভেকু মেশিন দিয়ে তাদের বাড়ি ঘর ভাঙচুর করে। ওই সময় তাদের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে তারা চলে যান।

ভুক্তভোগী সমসের আলী বলেন, আমাদের বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে। প্রতিবাদ করায় আমাদের নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন তারা। আমরা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি ডায়েরি করেছেন। এ সকল বিষয়ে শুক্রবার সকালে প্রতারক রুবেলের বিরুদ্ধে গোপিনাথপুরে একটি গ্রাম্য সালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর মহি উদ্দীন কাজী মো. বজলুর রহমান, মো. গোলাম রসুল, গৌতম ঘোষ, মিল্টন হোসেন, ইসরাফিল হোসেন, আকমল হোসেনসহ গোপিনাথপুর, ল²ীকোল ও গয়েশপুর গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। তবে ওই সালিস বৈঠকে অভিযুক্ত রুবেল উপস্থিত হননি। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রুবেলের সাথে মোবাইলফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More