ঝিনাইদহ ডিবির হাতে গাঁজাসহ দুই মাদকব্যবসায়ী আটক

গড়াইটুপি প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানাধীন তিতুদহ পুলিশ ফাঁড়ির ১০০ গজ দূরে চলে আসছে গাঁজার রমরমা ব্যবসা! জানে না পুলিশ। গাঁজাসহ চিহ্নিত দুই মাদকব্যবসায়ীকে আটক করেছে ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশ। গত বুধবার বিকেলে তাদেরকে ৫শ’ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করা হয়।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার তিতুদহ ক্যাম্পপাড়ার চিহ্নিত গাঁজা ব্যবসায়ী গোলাপ হোসেনের ছেলে মহির হোসেন ও তার সহযোগী একই গ্রামের খলিল ম-লের ছেলে নাজমুল হোসেন দীর্ঘদিন যাবত নিজ বাড়িতে গাঁজার ব্যবসা করে আসছিলো। গত বুধবার বিকেলে ক্রেতা সেজে মোটা অংকের টাকার প্রলোভন দেখিয়ে ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশ মহিরকে ফোন করে গাঁজা লাগবে বলে জানায়। তাকে পার্শ্ববর্তী ঝিনাইদহ সদরের বংকিরায় আসতে বলে। পরে তাদের কথামত ৫শ’ গ্রাম গাঁজাসহ মহির ও নাজমূল বংকিরায় গেলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা চৌকস ডিবি টিম তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে। এ বিষয়ে ঝিনাইদহ ওসি (ডিবি) আনোয়ার হোসেন বলেন, গত বুধবার ঝিনাইদহ ডিবির একটি চৌকস টিম ক্রেতা সেজে ফাঁদে ফেলে চুয়াডাঙ্গার তিতুদহ গ্রামের দুজনকে ৫শ’ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে। পরে গত বৃহস্পতিবার তাদেরকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এদিকে স্থানীয় তিতুদহ ক্যাম্পের মাত্র ১০০গজ দূরে এমন গাঁজার ব্যবসা করতো। এতে পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে সাধারণ জনগণের মাঝে। এ বিষয়ে তিতুদহ ক্যাম্প ইনচার্জ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মাদকের বিষয়ে আমরা জিরো টলারেন্স। মাদক ব্যবসার বিষয়ে জানতাম না। জানলে অবশ্যই তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতাম। দর্শনা থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাব্বুর রহমান এ বিষয়ে আরও বলেন, মাদকের ব্যাপারে পুলিশ অনেক সোচ্চার। তাদের কোনো ছাড় নেই।তথ্যটি আমাদের জ¬¬¬¬¬¬ানা থাকলে অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতাম।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More