দামুড়হুদায় আবাসিক এলাকায় ফুড ফ্যাক্টরি স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন : অপসারণের দাবী

 

দামুড়হুদা অফিস: চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলা সদরের বাসস্ট্যান্ডের আবাসিক এলাকায় এন ওয়েভ এগ্রো ফুডস ফ্যাক্টরি স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এন এগ্রো ফুডস ফ্যাক্টরির সামনে এ মানববন্ধন করা হয়। মানববন্ধনে ভুক্তভোগীরা বক্তব্যে অভিযোগ করে বলেন, দামুড়হুদা উপজেলা শহরের বাসস্ট্যান্ড আবাসিক এলাকায় গত ৬মাস পূর্বে এন ওয়েভ এগ্রো ফুডস নামে একটি ফ্যাক্টরি স্থাপন করা হয়। ওই ফ্যাক্টরির ৫০কেভি জেনেরেটর ও ২টি হেবি ওয়েট কন্টিনারের শব্দ ও রাসায়নিক ক্যামিকেলের গন্ধে আশেপাশে বসবাসকারী পরিবারের সদস্যদের বসবাস করা খুবই কষ্টকর হয়ে উঠেছে। জেনেরেটরের উচ্চ শব্দে ঠিক মতো রাতে ঘুমাতে পারছেনা ভুক্তভোগী ২০টি পরিবারের সদস্যরা। এছাড়াও শিশু শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার উপর প্রভাব পড়ছে এবং মানুষিক বিকাশে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। জেনেরেটরের অতিরিক্ত শব্দে শব্দ দূষণ ও রাসায়নিক ক্যামিকেলের গন্ধে শিশুসহ বয়স্কদের উপর প্রভাব পড়ছে। তারা আরও বলেন, আবাসিক এলাকায় অবৈধভাবে ফুডস ফ্যাক্টরিটি গড়ে তোলা হয়েছে। জনদূর্ভোগ নিরসনে আবাসিক এলাকা থেকে দ্রুত ওই ফ্যাক্টরিটি অপসারণের দাবী করেন ভুক্তভোগী পরিবারসহ সচেতন মহল। এন ওয়েভ এগ্রো ফুডস ফ্যাক্টরির প্রোডাকশন ম্যানেজার এনামুল কবির অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বর্তমানে দেশে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের জন্য আমাদের কে জেনেরেটর চালাতে হচ্ছে। আমরা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছি অতি দ্রুত জেনেরেটরটি স্থানান্তর করা হবে। উল্লেখ্য, ওই অবৈধ ফুডস ফ্যাক্টরির অপসারণের দাবীতে আবাসিক এলাকার একজন ভুক্তভোগী কাজী আমিরুল ইসলাম গণ স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ করেছে পরিবেশ অধিদফতরের প্রধান কর্মকর্তার নিকট। এরপূর্বেও একাধিকবার ওই ফুডস ফ্যাক্টরি অপসারণের দাবীতে ভুক্তভোগীরা, দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, দামুড়হুদা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করে। স্থানীয় প্রশাসনের কাছে দ্রুত উচ্চ শব্দের জেনেরেটর মেশিনটি সরিয়ে নেয়ার অঙ্গিকার করেও তা তারা সরিয়ে নেইনি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More