দুই কেজি গাঁজাসহ আলুকদিয়ার তিন যুবক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় দুই কেজি গাঁজা ও দুটি চোরাই মোটরসাইকেলসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। তারা সকলেই সদর উপজেলার আলুকদিয়া গ্রামের বাসিন্দা। গতকাল সোমবার বিকেলে জেলা শহরের পুলিশ লাইন্সের সামনে থেকে তাদেরকে আটক করে সদর থানা পুলিশ। গাঁজা পাচার ও মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় গত রাতেই তাদের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলুকদিয়া ইউনিয়নের আলুকদিয়া বাজারপাড়ার আব্দুল মান্নানের ছেলে শাওন হোসেন (৩০), আলুকদিয়া মোল্লাপাড়ার হামিদুল ইসলামের ছেলে পিয়াস হোসেন (২০) ও আলুকদিয়া নওদাপাড়ার জিনারুল ইসলামের ছেলে রুবেল হোসেন (২৩)।
পুলিশ জানিয়েছে, দর্শনা থেকে মোটরসাইকেলযোগে গাঁজার একটি চালান চুয়াডাঙ্গার দিকে পাচার করা হচ্ছে বলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পায় সদর থানা পুলিশ। ওই খবরে গতকাল সোমবার বিকেল ৫টার দিকে সদর থানার এসআই কৃপা সিন্ধু মৃধা, এসআই হাসানুজ্জামান, এএসআই মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ সঙ্গীয় ফোর্সসহ চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন্সের সামনে অবস্থান নেন। এসময় চুয়াডাঙ্গার দিকে আসা দুই মোটরসাইকেলের গতিরোধ করা হয়। গতিরোধ করার সাথে সাথে মোটরসাইকেল আরোহীদের মধ্যে একজন পালিয়ে গেলেও আটক করা হয় শাওন, পিয়াস ও রুবেলকে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় দুই কেজি গাঁজা। পুলিশ তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল দুটির কাগজপত্র চাইলে তা দেখাতে ব্যর্থ হয়। পরে তিনজনকে আটক করে থানায় নেয়া হয়।
সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান বলেন, আটককৃত তিনজনকে থানায় নিয়ে তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলের কাগজপত্র চাওয়া হলে তারা দেখাতে পারেনি। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে মোটরসাইকেল দুটি চোরাই বলে জানায় তারা। আটককৃতরা মাদকদ্রব্য পাচারের পাশাপাশি মোটরসাইকেল চুরির সাথে জড়িত রয়েছে। গাঁজা পাচার ও মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় গত রাতেই সদর থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত অন্যদের খুঁজে বের করতে কাজ করছে পুলিশ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More