পাঁচ দোকানের কয়েক বস্তা চাল ও নগদ টাকা চুরি 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার রেলবাজারের বেশকয়েকটি দোকানে আবারও চুরির ঘটনা ঘটেছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে দোকানের টিন ও গ্রিল কেটে নগদ টাকাসহ মালামাল চুরি করে চোরচক্র। এ ঘটনার সময় বাজারের নৈশপ্রহরী যেমন ঘুমিয়ে ছিলেন, তেমনই বৈদ্যুতিক খুঁটি না থাকায় এ ঘটনার অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। এদিকে, পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন বাজার এলাকায় বেশকয়েকটি দোকানে আবারও নির্বিঘেœ চুরির ঘটনায় উদ্বিগ্ন ব্যবসায়ীসহ স্থানীয়রা।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার রেলবাজারের ৫টি দোকানের টিন ও গ্রিল কেটে দোকানের মধ্যে নির্বিঘেœ প্রবেশ করে চোরচক্র। নগদ টাকাসহ মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। এর মধ্যে জিনারুল স্টোর থেকে নগদ ২ হাজার টাকা, ফকির মহাম্মদের চাল ঘর থেকে ৩ বস্তা চাল ও নগদ ৭শ’ টাকা, মওলাবক্স ভূষিমালের ঘর থেকে নগদ ৪শ’ টাকা, মজনু রহমানের চাল ঘর থেকে দ্ইুটি মোবাইল ফোন ও নগদ ১২শ’ টাকা নিয়ে যায় চোরচক্র। একইসাথে আশাবুল হকের চাল ঘরের ক্যাশড্রয়ারও ভেঙে ফেলে চক্রটি।

ব্যবসায়ী আশাবুল হক বলেন, আমি রাতে ক্যাশের টাকা বাসায় নিয়ে গিয়েছিলাম বলে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছি। রেলবাজার কমিটির সভাপতি মুনছুর আলী বলেন, আমাদের বাজারে বৈদ্যুতিক খুঁটি না থাকার কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে চুরির ঘটনা। আমি একাধিকবার বিদ্যুৎ অফিসসহ সংশিষ্ট অফিসে গিয়ে বৈদ্যুতিক খঁটি নির্মাণের জন্য অনুরোধ করি। কিন্তু আজও বাজারে বৈদ্যুতিক খুঁটি নির্মাণ করা হয়নি। তাছাড়া বাজারের নৈশপ্রহরী আলহাজ আলী চুরির সময় ঘুমিয়েছিলো বলে স্বীকার করেছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More