পৌরবাসীকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে

চুয়াডাঙ্গা ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কর্মীসভায় সাবেক মেয়র টোটন জোয়ার্দ্দার

স্টাফ রিপোর্টার: আসন্ন পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেল পাঁচটায় শহরের পুরাতন হাসপাতালপাড়ার নবনির্মিত পরিবার পরিকল্পনার বিভাগের কার্যালয়ের দোতলা ভবনে এ কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ, পৌর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ এবং পৌর এলাকার ৯টি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকবৃন্দসহ নারী-পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

চুয়াডাঙ্গা ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল জব্বার বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মী সমাবেশে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে  পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি আলাউদ্দিন হেলা, জেলা পরিষদ সদস্য শহিদুল ইসলাম শাহান ও নুরুন্নাহার কাকলী, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাদী মিলি, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু এবং যুবলীগ নেতা আব্দুল কাদের বক্তব্য রাখেন। অন্যান্যের মধ্যে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ জাবেদ ও রাজু আহম্মেদ বক্তব্য রাখেন। কর্মী সমাবেশ সঞ্চালনায় ছিলেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম আজম পিনা ও সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন। কর্মী সমাবেশে ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সালাউদ্দিন স্বাগত বক্তব্য রাখেন।  সমাবেশে পবিত্র কোরাআন থেকে তেলাওয়াত করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিম। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের শহীদদের প্রতি, প্রয়াত জাতীয় চার নেতা এবং ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতাকর্মীদের স্মরণে ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়।

কর্মী সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাড. বেলাল হোসেন (পিপি), সাবেক পিপি অ্যাড. আলমগীর হোসেন, অ্যাড. ইফতিখার হোসেন খোকন, অ্যাড. ইমতিয়াজ হোসেন উজ্জ্বল, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজরিন সুলতানা মলি, জুয়েলারী সমিতির সভাপতি সাইফুল হাসান জোয়ার্দ্দার, ব্যবসায়ী হাসানুজ্জামান বাবু, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবীর, বীর মুক্তিযোদ্ধা রিয়াজ উদ্দিন, শ্রমিক লীগ নেতা আব্দুস সালাম, ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন ও ইকবাল আকতার রাজুসহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কর্মী সমাবেশের প্রধান অতিথি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন বলেন, পৌরবাসীকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। নানা সমস্যায় জর্জরিত চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা। এখনকার চিত্র ভয়াবহ। আমাদেরকে সকল ভেদাভেদ ভুলে সামনের নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হতে হবে। যেকোনো নির্বাচনে ষড়যন্ত্র হয়। বিশেষ করে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয়। সেজন্য আপনাদের সকলকে সচেতন হতে হবে। গত পৌর নির্বাচনে ষড়যন্ত্র হলো। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ক্যু করা হলো। আপনারা বাড়ি চলে গিয়ে নির্বাচনের কাজ শুরু করেন। ষড়যন্ত্র মোকাবেলার শক্তি সঞ্চয় করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর সৈনিকরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যেখানে যার দক্ষতা আছে তাকে সেখানে কাজে লাগাতে হবে। এখন পৌরসভায় মানুষ গেলে পৌর নাগরিক সেবা পায়না। আওয়ামী লীগ নেতা যখন ছিলো তখন মানুষ সেবা পেয়েছে। আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলছি, আমি আপনাদের সেবা করেছি। ভোট নিলেই হবে না, সেবা করার মানসিকতা থাকতে হবে। আজকে মানুষের সেবা কোন জায়গায় নিয়ে গেছে? ড্রেনের মধ্যে নেমে ড্রেন পরিস্কার করছে। শাসন থাকলে ঠিকাদার চুরি করবে না। চেলকো ছেলে পুলে পৌরসভা চালায়। কারো ভয়ভীতিতে ঘরে বসে থাকবেন না। পৌরসভার হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে চান তাহলে নির্বাচনে ভুল করবেন না। বর্তমানে পৌরসভার বিদ্যুত বিল বাকী, কর্মচারীদের বেতন হয় না, প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ২ হাজার ৫০০ টাকা জনগণের জন্য দিলেন। আপনাদের কাছ থেকে আইডি কার্ড নিলেন। কিন্ত তাদের নামে টাকা তুলে নিয়েছে। মানুষের ন্যায্য পাওনা ৭০০ জন এখনো ভাতা পায়নি। টাকা ফেরত গেছে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে। টোটনকে ভোট দিলে সেবা নিশ্চিত হবে। করোনাকালীন সময়ে আওয়ামী লীগ নেতা ফেরদৌস ওয়ারা সুন্নাসহ বিভিন্ন নেতাকর্মীদের সাথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমি দেখা করেছি। আমার নেতা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন শিখিয়েছেন দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মিথ্যা কথা বলবে না। নেতাদের ভালোবাসতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদের সদস্য শহিদুল ইসলাম শাহান বলেন, বিগত নির্বাচনে কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করে পৌর উন্নয়নের রূপকার ও যোগ্য মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনকে হারিয়ে দেয়। তবে, সেদিন মেয়র টোটন হারিনি, হেরেছিলো চুয়াডাঙ্গা পৌরবাসী।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More