প্রতরণার অভিযোগে খুলনা দিঘলিয়ার মনিরুজ্জামান চুয়াডাঙ্গায় গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনা দিঘলিয়ার এসএম মনিরুজ্জামানকে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এসআই আহসানুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম এসএম মনিরুজ্জামানকে খুলনার দৌলতপুরের তার ভাড়া বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।
বিভিন্ন সময় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ও সরকারি চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে মানুষের কাছ থেকে তিনি মোটা অংকের টাকা নিতেন নিজের ব্যাংক একাউন্টে বা নগদে। তারপর গা ঢাকা দিতেন বলে জানায় পুলিশ। চুয়াডাঙ্গা মুক্তিপাড়ার আইনজীবী বদরউদ্দিনের বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী আইনে করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ।
পুলিশ জানিয়েছে, চুয়াডাঙ্গা জজকোর্টের আইনজীবী বদরউদ্দিনের কাছ থেকে তার ছেলেকে আমেরিকা-কানাডা-অস্ট্রেলিয়ার কোথাও পাঠিয়ে দেয়ার কথা বলে ২৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা নেয় মনিরুজ্জামান। টাকা নেয়ার জন্য এসএম মনিরুজ্জামান নানা কৌশলের আশ্রয় নিয়েছিলেন। টাকা নেয়ার পর এক পর্যায়ে এসএম মনিরুজ্জামান তার মোবাইলফোনের সীম বদলে ফেলেন। গত বছর অক্টোবর মাসে এস এম মনিরুজ্জামানের নামে আইনজীবী বদরউদ্দিন চুয়াডাঙ্গার আমলী আদালতে বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামি করা হয় এসএম মনিরুজ্জামান ও তার সহযোগী চুয়াডাঙ্গার নীলমণিগঞ্জের মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে শাহনেওয়াজ বাচ্চুকে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আহসান মামলার আসামি এসএম মনিরুজ্জামানের অবস্থান খুঁজে বের করেন এবং বৃহস্পতিবার সকালে খুলনার দৌলতপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করে চুয়াডাঙ্গায় নিয়ে আসেন। এর আগে গত ডিসেম্বরে শাহনেওয়াজকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আজ শুক্রবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হতে পারে বলে জানায় পুলিশ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More