প্রতিপক্ষের লাথির আঘাতে জীবন গেলো কোটচাঁদপুরের বদরুদ্দিনের

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি: প্রতিপক্ষের লাথির আঘাতে জীবন গেলো বদরুদ্দিনের (৬৫)। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে কোটচাঁদপুরের বলুহর গ্রামের হ্যাচারিপাড়ায়। সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছেন মৃতের ছেলে মনিরুল ইসলাম জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমাদের বাড়ির ওপর দিয়ে জিয়া ও তার ভাইয়েরা জমির ফসলাদি উঠায়। এ বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার জিয়ার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আমার আব্বার। এক পর্যায়ে তারা আমার আব্বাকে ব্যাপক মারধরও করেন। তারপরও আমি আমার আব্বাকে কোনো গোলযোগ না করার জন্য বলি। এরপরও আমার আব্বাকে একা পেয়ে রাস্তার ভেতর আবারও মারপিট করেন। এতে করে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। এরপর তার অবস্থার অবনতি হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসা তাকে যশোরে রেফার্ড করেন। মৃতের স্বজনেরা তাকে যশোর নিয়ে যাওয়ার পথেই তিনি মারা যান। মৃত বদরুদ্দিন (বুদ্ধিস্বর) বলুহর হ্যাচারীপাড়ার মৃত সোবাহান ম-লের ছেলে। এ ব্যাপারে কথা হয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. সুব্রত কুমার বিশ্বাসের সঙ্গে তিনি বলেন, আঘাত জনিত কারণে ভর্তি হয়। চিকিৎসাও দেয়া হয়। এরপর উন্নতি না হলে তাকে যশোরে রেফার্ড করা হয়। খবর পেয়ে কোটচাঁদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুল আলম ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসেন। প্রাথমিক তদন্তে তেমন কোনো কিছু পাওয়া যায়নি, ময়না তদন্তের রিপোর্ট এলে বলা যাবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিলো।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More