ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে সেবা দিচ্ছে ফ্রেন্ডস্ ৮৭’ মেহেরপুর – মহাদূর্যোগে সেবা পেয়ে খুশি সাধারণ মানুষ

মেহেরপুর অফিস: করোনার এই মহা দূর্যোগে চিকিৎসা সেবা পাওয়ায় যেনো সোনার হরিণ। সরকারি কি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সবখানেই চিকিৎসা সেবা পেতে গিয়ে ভোগান্তির শিকার সাধারণ মানুষ। ভুক্তভোগী এসব মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনর সংগঠন ফেন্ডস্ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনস্ মেহেরপুর, ফ্রেন্ডস-৮৭ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন কয়েকজন চিকিৎসক। সেবা পেয়ে খুশি সাধারণ মানুষ। মেহেরপুর সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে সমস্ত প্রতিকুলতা উপেক্ষা করে প্রতি শুক্রবার বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন এসব চিকিৎসক। সাথে দিচ্ছেন কিছু ওষুধও। করোনার এই মহামারিতে মনে ভর করেছে নানা দুশ্চিন্তা। তারপরও তো ফ্রন্ট লাইনের যোদ্ধা চিকিৎসকেরাই। সেই চিন্তা থেকে সমস্ত ভীতি দূর করে চিকিৎসা সেবা দিয়ে চলেছেন। রোগীদের সুস্থ করার মাঝেই খুঁজে পেয়েছেন এক চিলতে হাসি। যা উদ্বুদ্ধ করছে সামনের দিকের সমস্ত প্রতিকুলকতা জয় করার। আর এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করেছে ফ্রেন্ডস ৮৭ মেহেরপুর নামের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

ক্যাম্পের চিকিৎসক সজিবুল হক সজিব জানান, করোনা মহামারিতে বিশ্ব যখন মৃত্যু এবং রোগ সনাক্তে প্রতিনিয়ত হাবুডুবু খাচ্ছে তখন বাংলাদেশ পিছিয়ে নেই। সব পেশার মানুষ প্রতিনিয়ত আক্রান্ত হচ্ছে এবং মৃত্যুবরণও করছেন। তখন সাধারণ রোগী কিংবা জটিল রোগী সকলে চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এমন সময় ফেন্ডস্ ৮৭’র মহৎ আয়োজনকে সম্মান জানিয়ে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। গত কয়েক সপ্তাহে সাধারণ রোগীদের উপস্থিতি এবং সাড়া পেয়ে নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে।

চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগী ফারজানা জানালেন, সরকারি বা বেসরকারি হাসপাতালগুলোতেই যেখানে টাকা দিয়েও সেবা পাওয়াই দুস্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেখানে বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা এবং ওষুধ পেয়ে খুশি। তিনি অভিযোগ করে জানান টেলি মেডিকেল সেবা কয়জনই বা বোঝে? সকলে চান চিকিৎসকের শরনাপন্ন হয়ে চিকিৎসা সেবা নিতে। এ জন্য সংগঠনটিকে ধন্যবাদ।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জানান, ফ্রেন্ডস্ ৮৭’র প্রধান উপদেষ্টা জনপ্রশাসন মন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের নির্দেশনাই শুধু এই বৈষ্ণিক দুর্যোগই নয়; সামনের দিকে এ ধারা অব্যহত রাখতে চায় সংগঠনটি। থাকতে চান সমাজের অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে। এসময় স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সদস্যরা। এর আগে মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন করেন জেলা বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. আবু তাহের। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডা. আরাফাত আল আকাশ, ফ্রেন্ডস-৮৭’র সদস্য ও মেহেরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক আলামিন হোসেন, সংগঠনের সভাপতি আমিনুল ইসলাম খোকন, আতিকুল ইসলাম খাঁন, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সদস্য আব্দুল মান্নান, শাহনেওয়াজ বকুল, শহিদুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, ফারুক হোসেন ও আব্দুল হাকিম। ওই দিন প্রায় ২শতাধিক সাধারণ রোগী সেবা নিয়েছেন।

এর আগে সকালে মেহেরপুর কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির সভাপতি আনারুল মিয়া তার সমিতি থেকে বেশ কিছু ফ্রি ওষুধ প্রদান করেন। ফ্রেন্ডস-৮৭ এর সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম ওই ওষুধ গ্রহণ করেন। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাদেকুজ্জামান রানা, নির্বাহী সদস্য মতিয়ার রহমান প্রমুখ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More