রাত পোহালেই ভোট কার্পাসডাঙ্গা বাজার দোকান মালিক সমিতির : কেন্দ্র কার্পাসডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ             

হাসমত আলী: রাত পোহালেই ভোট ঐতিহ্যবাসী দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা বাজার দোকান মালিক সমিতির নির্বাচন ৫ নভেম্বর শনিবার ভোট গ্রহণ। সকল প্রস্তুতি সম্পুর্ণ। কে হচ্ছে নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তা নিয়ে বাজারের চায়ের দোকানগুলোসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চলছে নানা গুঞ্জন। ভোটের অঙ্ক কোষছে প্রার্থীরা। ৫ নভেম্বর শনিবার সকাল ৮টা হইতে বিরতিহীন ভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে কার্পাসডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজে। সকল জল্পনা -কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সর্বশেষ কার্পাসডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজে ভোট কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও সকল নির্বাচন কমিশনারদের সাথে নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং কার্পাসডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজে ভোট কেন্দ্রে প্রার্থীদের অবগতি করানো হয়। তারপর গতকালই বিকালে নির্বাচন কমিশনারের নির্দেশেই বাজারে প্রচার মাইকিং করা হয়েছে। প্রার্থীরা শেষ মুহুর্তের ভুল-ভ্রান্ত্রি ও বিরোধ  মেটাতে এখনো ব্যস্ত প্রার্থী ও তার সমর্থকরা গোপনে। ভোটাররাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিবে বলে। তবে অনেক ভোটাররা বলছে প্রতীকের চেয়ে ব্যক্তিই প্রাধন্য পাবে বেশি ।

কার্পাসডাঙ্গা বাজার  দোকান মালিক সমিতির নির্বাচন মোট ৭৭০ ভোটারে ১৭টি পদের মধ্যে ১১টি পদের বিপরীতে ১২ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন এবং ৫টি পদের বিপরীতে ১১জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনের আহ্বায়ক হিসাবে দায়িত্বে আছেন কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল করিম। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে রয়েছেন কার্পাসডাঙ্গা ডিএস দাখিল মাদরাসার সাবেক শিক্ষক মো. গোলাম ইউসুপ এবং সহকারী নির্বাচন কমিশনার হিসাবে আছেন, মো. আশরাফুল হক, মো. আব্দুস সালাম, হাজী মো. ফজলুল হক, মো. আতিয়ার রহমান ও কামরুজ্জামান রান। কার্পাসডাঙ্গা বাজার দোকান মালিক সমিতির মোট ৭৭০ ভোটার রয়েছে। সভাপতি পদে ২ জন মো. আজিবর রহমান সিজার  (চেয়ার) ও আলমগীর রাসেল (ছাতা) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে ২জন মোস্তফিজ কচি (মাছ) ও নাজমুল সালেহীন (মই) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে ২জন আবুল কালাম  (মোরগ) ও ফরিদ হোসেন (দেয়ালঘড়ি) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ২ জন তুহিন আক্তার (প্রজাপতি) ও সানোয়ার খাবলী (হারিকেন) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এবং কোষাধ্যক্ষ পদে ৩ জন আজিবর রহমান (ফুটবল), হাসান ইমাম (হাতি) ও আনোয়ার হোসেন (বৈদ্যুতিক পাখা) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সহ-সভাপতি পদে মো. খোরশেদ আলম ও মো. রফিকুল ইসলাম ২ জনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। প্রচার সম্পাদক পদে মো. শফিকুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। দপ্তর সম্পাদক পদে মো. ফারুক হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়াও সাধারণ সদস্য ৮টি ওয়ার্ডের মো. সাইফুল্লাহ আল মামুন, জিয়াউর রহমান, লালন মিয়া, আব্দুস সামাদ, আব্দুল আলিম, জামাত আলী, রিপন মিয়া ও হেলাল উদ্দীন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। কার্পাসডাঙ্গা বাজার দোকান মালিক সমিতির ভোটারগণ নির্বাচনকে ঘিরে শুরু হয়েছে আমেজ ও নানান গুঞ্জন।  কে হবে নির্বাচিত সভাপতি-সম্পাদক এ নিয়ে পুরো বাজারে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। চায়ের দোকানে রয়েছে ব্যবসায়ী ভোটারদের ভিড়। যোগ্য ও তরুণ প্রার্থীদেরকে নির্বাচিত করার জন্য ব্যবসায়ীদের অধির আগ্রহ প্রকাশ করেছেন  ভোটাররা। ভোটাররা বলেছেন, তারা তরুণ, সৎ ও দক্ষ যোগ্য প্রার্থী নির্বাচিত করবেন। তবে প্রত্যেক প্রার্থীই জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More