শিক্ষক ইলা আপা আর নেই

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার বিশিষ্ট শিক্ষক সবার প্রিয় মিসেস ইলা হক আর নেই (ইন্নালিল্লাহি….রাজেউন)। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানী ঢাকার বিআরবি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮২ বছর। গতকাল বাদ এশা জানাজা শেষে জান্নাতুল মাওলা কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন হয়।
চুয়াডাঙ্গা জোয়ার্দ্দারপাড়ার ব্যাংক কর্মকর্তা প্রয়াত আসাদ উল হকের স্ত্রী শফিকুন নাহার ইলা হক সকলের কাছে ‘ইলা আপা’ নামেই সুপরিচিত ছিলেন। গত আগস্ট থেকে তিনি ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে কিডনি রোগে আক্রান্ত ইলা হকের শারীরিক অসুস্থতার অবনতি হলে গত তিনদিন আগে তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে নেয়া হয়। গতকাল শুক্রবার সকালে সেখানেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি। ব্যক্তিগত জীবনে এক ছেলে ও এক মেয়ের জননী ছিলেন। তবে ১৯৮৫ সালে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে ছেলে এবং ২০১০ সালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মেয়ের মৃত্যু হয়। ২০১৮ সালে তার স্বামী আসাদ উল হকের মৃত্যুর পর থেকে তিনি একাকিত্ব জীবনযাপন করতে থাকেন।
মিসেস ইলা হক ১৯৬০ সাল থেকে শিক্ষকতা জগতে আপন দূতি ছড়িয়ে আসছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মেহেরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও ঝিনাইদহ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ তিনি চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে ছিলেন। ১৯৯৬ সালে সেখান থেকে অবসরগ্রহণ করেন মিসেস ইলা হক। পরে ১৯৯৭ সালে চুয়াডাঙ্গার জোয়ার্দ্দারপাড়ায় আলী-নূর কিন্ডারগার্টেন নামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। সেখানেও তিনি প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।
গতকাল শুক্রবার বাদ এশা চুয়াডাঙ্গা জান্নাতুল মাওলা জামে মসজিদে মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে জান্নাতুল মাওলা কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More