দেশ বিদেশের গুচ্ছ সংবাদ

বহিষ্কারাদেশ চ্যালেঞ্জের ঘোষণা মাহথিরের
মাথাভাঙ্গা মনিটর: মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ নিজের দল থেকে বহিষ্কারাদেশের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দিয়েছেন। দেশটির এ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও দলটির সিনিয়র তিন সদস্য ও তার ছেলেকে দল থেকে অপসারণ করা হয়। গত শুক্রবার মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, এক বিবৃতিতে মাহাথির মোহাম্মদসহ বহিষ্কার হওয়া পাঁচ নেতা জানিয়েছেন, ক্ষমতা সংহত করতে বারসাতু প্রেসিডেন্ট এককভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর বিরুদ্ধে আইনগত চ্যালেঞ্জ করবেন তারা। এছাড়া বারসাতু পার্টিকে ক্ষমতা লাভের হাতিয়ার হতে না দেয়ারও অঙ্গীকারও ব্যক্ত করেন তারা। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার মাহাথির মোহাম্মদ নিজের দল বারসাতু থেকে মাহাথির, তার ছেলে ও দলের তিন সিনিয়র সদস্যকে বহিষ্কার করা হয়। এর কারণ হিসেবে বলা হয়, গত ১৮ মে দেশটির পার্লামেন্টের অধিবেশন চলাকালীন বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের আসনে বসায় তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
রাফিয়া আরশাদ : যুক্তরাজ্যের প্রথম হিজাবি বিচারক
মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাজ্যে এই প্রথম একজন মুসলিম হিজাবি নারী বিচারক নিযুক্ত হলেন। তিনি নিজেকে হিজাবের প্রতি মুসলিম যুবতীদের জন্য একটি উৎসাহ হিসেবে উপস্থাপন করতে চান। আইন বিষয়ে ১৫ বছরের উজ্জ্বল ক্যারিয়ার নিয়ে গত সপ্তাহে একজন সফল ব্যারিস্টার রাফিয়া আরশাদ মিডল্যান্ডের উপ-জেলা বিচারক হিসেবে নিযুক্ত হন। রাফিয়া ১১ বছর বয়স থেকেই আইনজীবী হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। তিনি উত্তর ইংল্যান্ডের ইয়র্কশায়ারে বড় হন। বর্তমানে তার বয়স ৪০। তিন সন্তানের জননী রাফিয়া ছিলেন তার পরিবারের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া সদস্য। সে সময় তিনি ইসলামী পারিবারিক আইন বিষয়ক একটি চমৎকার প্রবন্ধ লেখেন। বিগত কয়েক বছর যাবত মিসেস আরশাদ সন্তান, জোরপূর্বক বিবাহ, নারীদের যৌনাঙ্গহানিসহ ইসলামী আইন সম্পর্কিত অন্যান্য কেইস নিয়ে আইনচর্চা করে আসছিলেন। রাফিয়া নিজের সম্পর্কে বলেন, আমার বর্তমান অবস্থা ব্যক্তি হিসেবে আমার চেয়ে অনেক বড়। হিজাব পরিধান করা শুধুমাত্র মুসলিম নারীদের জন্যই নয়; বরং সব ধর্মের নারীদের জন্য এটা জরুরি। তবে মুসলিম নারীদের জন্য এটা বিশেষভাবে প্রয়োজন।
ইন্ডিয়া নাম বাতিল করতে ভারতের সুপ্রিমকোর্টে মামলা
মাথাভাঙ্গা মনিটর: সব জায়গায় দেশের নাম ভারত ব্যবহার হবে, ইন্ডিয়া নামটি বাদ দেয়া হবে- এমন সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। ভারতের সুপ্রিমকোর্টে দিল্লির এক ব্যক্তি এ নিয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম। মামলায় সেই ব্যক্তি দাবি জানিয়েছেন, ভারত নামটির মধ্যেই দেশটির সব ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি বহন করে। এ নামে দেশবাসীর জাতীয়তাবোধ বেশি জেগে উঠবে। তাই দেশকে দুটি নামে না ডেকে সব জায়গায় একটি ব্যবহার করতে। সেক্ষেত্রে ভারত বা হিন্দুস্তানকে প্রাধান্য দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া মামলায় সংবিধানের ধারা অনুচ্ছেদের উল্লেখ করে আবেদন করা হয়েছে, একটাই নাম দেশের মানুষের মধ্যে জাতীয়তাবোধ বাড়াবে। ভারতীয় হিসাবে গর্ববোধ করে দেশটির অধিবাসীরা।
কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা : অভিযুক্ত সেই পুলিশ কর্মকর্তাকে ডিভোর্স দিচ্ছেন স্ত্রী
মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপলিসে জর্জ ফ্লয়েড নামের কৃষ্ণাঙ্গ এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত পুলিশের সাবেক কর্মকর্তা দারেক চাউভিনের সঙ্গে ১০ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি টানার কথা জানিয়েছেন তার স্ত্রী ক্যালি চাউভিন। জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে ইতোমধ্যে দারেক চাউভিন নামে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়েছে। একটি বিবৃতিতে ক্যালি চাউভিনের আইনজীবী জানান, কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় অভিযুক্ত হওয়ার কারণে দারেক চাউভিনের স্ত্রী তাকে ডিভোর্স দিচ্ছেন। এছাড়া ক্যালি চাউভিনের নিহত জর্জ ফ্লয়েডের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে বলেও জানান তার আইনজীবী। এছাড়া এই ঘটনায় ক্যালি চাউভিন তার আগের ঘরের সন্তান, বাবা- মা এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ করেছেন।

জেলা পর্যায়ে দেওয়ানি আদালতেও বিচার চলবে
স্টাফ রিপোর্টার: দেশের নিম্ন বা অধস্তন আদালত হিসেবে পরিচিত জেলা পর্যায়ে থাকা আদালতগুলোতে বিচারের এখতিয়ার বাড়িয়ে আদেশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। অধস্তন দেওয়ানি ও ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনাল সমূহে বিচার কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে গতকাল শনিবার আদেশ জারি করা হয়েছে। নতুন আদেশ অনুযায়ী অধস্তন দেওয়ানি ও ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনাল সমূহে অতি জরুরি বিষয়ে বিচার কার্যক্রম পরিচালিত হবে। ভার্চুয়াল শুনানির মাধ্যমে এই আদালত কার্যক্রম চলবে। এক্ষেত্রেও গত ১০ মে জারি করা প্রাকটিস নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত এই নির্দেশনা বহাল থাকবে। শনিবার জারি করা আদেশে বলা হয়েছে, অধস্তন দেওয়ানি ও ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনাল সমূহ প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অতি জরুরি বিষয় সমূহ শুনানি গ্রহণ ও প্রয়োজনীয় আদেশ প্রদান করবেন। এক্ষেত্রে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ-২০২০ এবং গত ১০ মে সুপ্রিম কোর্টের জারি করা ২১৪ নম্বর বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী বিশেষ প্রাকটিস নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। তবে ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তি, অসুস্থ কর্মচারী এবং সন্তান সম্ভবা নারীরা কর্মস্থলে উপস্থিত হতে পারবেন না।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করলো জাতিসংঘ
স্টাফ রিপোর্টার: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে শান্তিরক্ষীদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের স্বীকৃতি স্বরুপ একসেট স্মারক ডাকটিকেট অবমুক্ত করলো জাতিসংঘ। জাতিসংঘের পোস্টাল অ্যডমিনিষ্ট্রেশন ও জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের যৌথ উদ্যোগে ‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীদের আন্তর্জাতিক দিবস (শান্তিরক্ষী দিবস)’ উপলক্ষে স্থানীয় সময় শনিবার (৩০ মে) এই ডাকটিকিট অবমুক্ত করা হয়। জাতিসংঘ সদর দফতরে দিনটি উদযাপনের অংশ হিসেবে ব্লু হেলমেটের অধীনে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের স্মৃতির উদ্দেশে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। যে সকল শান্তিরক্ষী বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য নিবেদিতভাবে দায়িত্বপালন করে যাচ্ছেন তাদের প্রতিও বিনম্র শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন তিনি। স্মারক ডাকটিকিটের ফলিওতে রয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা, মুজিববর্ষের লোগো এবং জাতির পিতার প্রতিকৃতিসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কর্মরত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীদের ছবি। এছাড়া আরো রয়েছে জাতিসংঘের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নিয়োজিত বাংলাদেশের দুজন নারী হেলিকপ্টার পাইলটের আইকনিক প্রতিকৃতি।
বিএনপি জিয়া হত্যার বিচার না করা রহস্যজনক : তথ্যমন্ত্রী
স্টাফ রিপোর্টার: খালেদা জিয়া দুই দফা ক্ষমতায় থেকেও জিয়া হত্যার বিচার না করা রহস্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ। গতকাল শনিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে হাছান মাহমুদ এ কথা বলেন। তিনি বলেন, জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপি মাজারে যায়, কিন্তু জিয়া হত্যার বিচার চায় না। হাছান মাহমুদ বলেন, জিয়াউর রহমানের স্ত্রী খালেদা জিয়া দুই দফায় ১০ বছর প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। আরও একবার বিতর্কিত নির্বাচনের মাধ্যমে এক মাসের বেশি ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রেখেছিলেন। এটি সত্যিই রহস্যজনক যে জিয়াউর রহমান হত্যার বিচার তিনি করলেন না। সে কারণে জনগণের মনেও এটি প্রশ্ন যে জিয়া হত্যার বিচার করলে থলের বিড়াল বেরিয়ে যাবে, এ জন্যই কি তিনি বিচার করেননি!
ঢালাওভাবে ছুটি লকডাউন প্রত্যাহার আত্মঘাতী : জাসদ
স্টাফ রিপোর্টার: জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এক বিবৃতিতে সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ, ভাইরাস বিশেষজ্ঞ, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এবং সরকার গঠিত টেকনিকাল কমিটির মতামতের বাইরে পূর্ণাঙ্গ পরিকল্পনা ছাড়া ঢালাওভাবে সরকারি ছুটি লকডাউন প্রত্যাহার ও সরকারি বেসরকারি অফিস ও প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন, বিপনিবিতান, দোকানপাট খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তকে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত বলে সমালোচনা করেছেন। শনিবার এক বিবৃতিতে তারা বলেন, যখন করোনা সংক্রমণ বিস্তার হচ্ছে তখন সরকারি ছুটি লকডাউন প্রত্যাহার সংক্রমণের ঝুঁকি, হার, গতি বাড়াবে এবং বড় ধরণের বিপর্যয় তৈরি করবে। তারা ঢালাওভাবে লকডাউন প্রত্যাহার না করে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল বিবেচনায় নিয়ে ধাপে ধাপে লকডাউন প্রত্যাহারের পূর্ণাঙ্গ পরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি জানান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More