সাবেক সংসদ সদস্য ছহিউদ্দীন স্বাধীনতা পুরস্কার পাওয়ায় মুজিবনগরে মিষ্টি বিতরণ

মুজিবনগর প্রতিনিধি:

মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি’র পিতা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক গণপরিষদ সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ছহিউদ্দীন স্বাধীনতা পুরস্কার-২২ পাচ্ছেন। ২০২২ সালের স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম প্রকাশ করা হয় গত মঙ্গলবার দুপুরে। স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে অনন্য অবদানের জন্য এ স্বীকৃতি পান মরহুম ছহিউদ্দীন। মন্ত্রী পরিষদ থেকে তালিকা ঘোষণার পর মুজিবনগরের মানুষ ছহিউদ্দীনের পরিবারের সদ্স্যদের অভিনন্দন ও শুভেজ্ঞা জানান।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় মুজিবনগর উপজেলার কেদারগন্জ বাজারে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রফিকুল ইসলাম তোতার উদ্যোগে মিষ্টি বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে মরহুম ছহিউদ্দীনের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আলোকপাত করা হয়। বক্তারা বলেন, জেলার শীর্ষ রাজনৈতিক পদ, মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক গণপরিষদ ও সংসদ সদস্য হয়েও ছহিউদ্দীন ছিলেন নিরাহংকার ও সাদাসিদে মানুষ। ক্ষমতায় থেকেও তিনি সম্পদের মোহে আকৃষ্ট ছিলেন না। উপরন্ত নিজের সম্পদ বিক্রি করে তিনি রাজনীতিতে ব্যয় করেছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি। স্বপরিবারে জাতির পিতাকে হত্যার পর শুধুই কান্নাকাটি করতেন ছহিউদ্দীন। শোক সামাল দিয়ে তিনি বঙ্গবন্ধুর খুনি মেজর বজলুল হুদার ফ্রিডম পার্টির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন।

অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রফিকুল ইসলাম তোতার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ.লীগের যুগ্মসম্পাদক নাসিরউদ্দীন বাবলু, যুবলীগ নেতা হাসানুজ্জামান লাল্টু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান মতিন, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি শাহ ওয়ালীউল্লাহ সোহাগ, ইউপি ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন গাজী, সাধারন সম্পাদক হাসিব খান ও সাবেক ছাত্র নেতা মামুনুর রহমান মামুন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More