আপনাদের কথা আমার সবসময়ই মনে খাকবে

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারকে বিদায় সংবর্ধনা
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার চুয়াডাঙ্গার বেশ কয়েকটি স্থানে বিদায়ী সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। সংবর্ধনা সভায় বিদায়ী জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, আমি নিজে চুয়াডাঙ্গা জেলাবাসী হয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছি। আমার বাড়ি নরসিংদী হলেও চুয়াডাঙ্গাকে নিজের এলাকা বলে মনে করতাম। আপনাদের কথা আমার সবসময়ই মনে খাকবে। আমি আশা করবো ঢাকাতে গেলে আপনারা আমার সাথে দেখা করবেন এবং যেকোন বিষয়ে সমাধানের আপ্রাণ চেষ্টা করবো। আপনাদের প্রতি শুভ কামনা রইল। আমি আপনাদের এ ভালোবাসার কথা কোনদিনই ভুলবো না।
চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের আয়োজনে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারকে বিদায়ী সংবর্ধনা দেয়া হয়। পুলিশ সুপারের অফিসকক্ষে সংক্ষিপ্ত আকারে বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন পুলিশ জাহিদুল ইসলাম। প্রধান অতিথি ছিলেন বিদায়ী জেলা প্রশসাক নজরুল ইসলাম সরকার। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) কনক কুমার দাস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আনিসুজ্জামান, সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) মুন্না বিশ্বাসসহ চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
অপর দিকে, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের আয়োজনে বিদায়ী জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদীন খোকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সংবর্ধনা সভায় জেলা পরিষদ সদস্য শহিদুল ইসলাম শাহান, নুরুন্নাহার কাকলি এবং সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান বক্তব্য রাখেন। এ সময় বিদায়ী জেলা প্রশাসককে ক্রেস্ট উপহার দেয়া হয়। সংবর্ধনা সভায় মাফলুকাতুর রহমান সাজু, খলিলুর রহমান, জহুরুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান মোল্লা, শফিকুল আলম নান্নু, মোসাবুল ইসলাম লিটন, মিজানুর রহমান, কাজল রেখা, মিতা খাতুন ও তানিয়া খাতুন এবং জেলা পরিষদের সহকারি প্রকৌশলী আনিসা খানম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. রোকনুজ্জামান, হিসাবরক্ষক আসলাম উদ্দিন, উচ্চমান সহকারী ইসরাইল হোসেন, বেদানা খাতুন ও সিএ জালাল উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। প্রশাসনিক কর্মকর্তা রমজান আলী সংবর্ধনা সভা সঞ্চালনা করেন। জেলা পরিষদ জামে মসজিদের ইমাম বায়েজিদ হুসাইন পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন।
এদিকে, চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্সের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারকে বিদায়ী সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চেম্বার ভবন মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা চেম্বারের সভাপতি ইয়াকুব হোসেন মালিক। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদায়ী জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইবরুল হাসান জোয়ার্দ্দার, জেলা পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম রিংকু প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহসভাপতি শাহারিন হক মালিক, সহসভাপতি মঞ্জুরুল আলম মালিক লার্জ, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল কাদের জগলু, চুয়াডাঙ্গা চেম্বারের পরিচালক নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার, হারুন অর রশিদ, তাজুল ইসলাম, কিশোর কুমার কু-ু, আরিফ হোসেন জোয়ার্দ্দার সোনা, একেএম সালাউদ্দীন মিঠু ও সালাউদ্দীন মো. মর্তুজাসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।
অন্যদিকে, বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা জেলা প্রশাসক নকরুল ইসলাম সরকারকে বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা চেম্বার ভবন সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ মীর মহিউদ্দিন। প্রধান অতিথি ছিলেন বিদায়ী জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. আব্দুল মাজেদ, জেলা সার ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হাজি আকবার আলী, জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা সার ডিলার এসোসিয়েশনের সভাপতি হাজি হাফিজুর রহমান, মাসুদুর রহমান লিঠু বিশ^াসের উপস্থাপনায় আর ও বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন আহাম্মেদ, দামুড়হুদা উপজেলার সভাপতি জগবন্ধু, আলমডাঙ্গা উপজেলা সভাপতি হাজি রফিকুল ইসলাম, সেক্রেটারি হাজি হারুন অর রশিদ, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা সেক্রেটারি হাজি মজিবুর রহমান, জীবননগর উপজেলা সেক্রেটারি মেসবাউল হক লিটন।
প্রসঙ্গত: বিদায়ী জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার যুগ্ম-সচিব হিসেবে সম্প্রতি পদন্নোতি পেয়েছেন। তিনি বদলি হয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ে বদলী হয়েছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More