আমাদের ভূলের কারনে আমরা পরিবেশ দূষণ করি

চুয়াডাঙ্গায় পরিবহন চালক-শ্রমিকদের শব্দ সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বক্তারা

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় পরিবহন চালক-শ্রমিকদের শব্দ সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। পরিবেশ অধিদফতর কুষ্টিয়ার উপ-পরিচালক আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। শব্দদুষণ নিয়ন্ত্রণে সমন্বিত ও অংশীদারত্বমূলক প্রকল্পের আওতায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আরাফাত হোসেন, ডা. আউলিয়ার রহমান ও হাবিবুর রহমান লাভলু।
শব্দ দূষণের ফলে ব্যক্তি ও সামাজিক জীবনে এর কি প্রভাব পড়ছে পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে তা উপস্থাপন করা হয়। শব্দ দূষণের হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে আমাদের কি করতে হবে সেটাও দেখানো হয়। পরে বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা এম জেনারেল, মামুনুর রহমান ও সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফ।
বক্তারা বলেন, পরিবেশের মূল উপাদান বায়ু, মাটি ও পানি। আমাদের ভূলের কারনে আমরা পরিবেশ দূষণ করি। আঘাতের ফলে কম্পনের সৃষ্টি হয়। আর সেটাই হলো শব্দ। মাত্রাতিরিক্ত শব্দ দূষণের ফলে আমরা বধির হয়ে যেতে পারি। ৩০-৪০ ডেসিবেল শব্দ আমাদের কানের জন্য সহায়ক। তবে ১০০ ডেসিবেল শব্দ হলে আমাদের শ্রবনশক্তি পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। চুয়াডাঙ্গাসহ পাশ্ববর্তী জেলায় শব্দ দূষনের হার অনেকবেশি। এর থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হলে পরিবহন চালক-শ্রমিকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে। আইন দিয়ে সব কিছু সম্ভব নয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More